বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০ ২০
হবিগঞ্জ ডেস্ক
২৭ অক্টোবর ২০ ২০
৫:১৮ অপরাহ্ণ
স্বজনদের কান্নার রোল, এলাকায় শোকের মাতম 
নবীগঞ্জে নিখোঁজের ৩য় দিন পর ধানক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

জাবেদ ইকবাল তালুকদার, নবীগঞ্জ :: নবীগঞ্জে নিখোঁজের ৩য় দিন পর ধানক্ষেত থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার পূর্ব তিমির পুরের এম আর সি ব্রিক ফিল্ড এর পাশের একটি ধানী জমি থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। 
উপজেলার ৮নং সদর ইউনিয়নের গুজাখাইর গ্রামের সহিদ উল্লাহর পুত্র  আবেদ উল্লাহ সেজু (১৮)।  
স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত ২৫ অক্টেববর উদ্ধারকৃত সেজুর নিখোজ নিয়ে নবীগঞ্জ থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করা হয়। ডায়েরীটি আমলে নিয়ে থানা পুলিশ সেজুকে বিভিন্ন জায়গায় খুজাঁখুজি করে  পায়নি। আজ ২৭অক্টোবর (মঙ্গলবার) পূর্ব তিমিরপুরের স্থানীয় লোকজন উল্লিখিত স্থানে একটি লাশ দেখতে পেয়ে বিষয়টি নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করার ১০-১৫মিনিটের মধ্যেই ওসি (অফিসার ইনচার্জ) মোঃ আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই সামছুল ইসলাম, এসআই ফখরুজ্জামান, এসআই আবু হানিফসহ থানার একদল পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেলের এএসপি (সহকারী পুলিশ সপার) পারবেজ আলম চৌধুরী, দৈনিক হবিগঞ্জ সময় পত্রিকার সম্পাদক ও নবীগঞ্জ পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের ৪ বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর মোঃ আলাউদ্দিন, নবীগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ প্রয়াত সাংবাকি স্মৃতি সংসদের সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন মিঠু, নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাবেুল আলম চৌধুরী সাজু, নবীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার সমিরন চন্দ্র দাশ, এসআই মহিউদ্দিন রতন।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেলের এএসপি পারভেজ আলম চৌধুরীর সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক, শুনার সাথে সাথে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রকৃত ঘটনা উদ্ধার করতে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ তদন্ত করছে। আমরা বেশ কিছু তথ্য পেয়েছি তদন্তের স্বার্থে তা প্রকাশ করা হচ্ছে না। আশা করছি খুব শীগ্রই প্রকৃত ঘটনা উদ্ধার এবং  ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করতে পারব।
নবীগঞ্জ থানার ওসি আজিজুর রহমানের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি বলেন, ছেলেটি নিখোঁজের ব্যাপারে থানায় ডায়েরী হয়েছিল আমরা তাকে খুজাঁখুজি করেও পাইনি। অদ্য ২৭অক্টোবর উল্লিখিত স্থানে একটি লাশ পড়ে আছে জানার সাথে সাথেই পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেছি।   এখন পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি তবে মামলা দয়ের প্রক্রিয়াধীন। আমরা আমাদের তদন্ত কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।
আবেদ উল্লাহ সেজুর মৃত্যুতে স্বজনদের কান্নার রোল পড়েছে, এলাকাবাসীর মধ্যে শোকের মাতম চলছে।

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য