রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কানাইঘাটে নির্মিত হয়েছে ফাতেমা কুঠির



কানাইঘাট প্রতিনিধি:: কানাইঘাটে হৃদয়ে সিলেট মুজিব ফোর্স এর অর্থায়নে নির্মিত হয়েছে ফাতেমা কুঠির। গত ২৬ মার্চ আনুষ্ঠানিক ভাবে এই ফাতেমা কুঠিরের চাবি ফাতেমা বেগমের নাতি আশিকুর রহমানের কাছে হস্তান্তর করেছেন প্রবাসী কমিউনিটি নেতা কানাইঘাটের কৃতি সন্তান এমসি কলেজের সাবেক ভিপি খসরুজ্জামান খসরু।

জানা যায়, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযোদ্ধে রাজাকারদের প্ররোচনায় হানাদার বাহিনীর হাতে জীবন্ত কবর দেওয়া স্বামী ও ছয় শহীদ সন্তানের মা গৃহহীন নব্বই উর্ধ দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে জীবন নির্বাহী ফাতেমা বেগমকে পেয়ে বীরদল এন এম একাডেমির স্বাধীনতার মঞ্চে নিয়ে গিয়ে সম্মাননা দিয়ে তার দায়িত্ব নিয়েছিলাম কানাইঘাটের এই প্রবাসী কমিউনিটি নেতা।

এছাড়া তিনি ফাতেমা বেগমকে প্রতি মাসে তার ব্যক্তিগত পক্ষথেকে মাসিক তিন হাজার টাকা করে ভিক্ষা না করার শর্তে তাকে প্রদানের ঘোষনা দিয়েছিলেন এই প্রবাসী নেতা। তাছাড়া ফাতেমা বেগমকে একটি গৃহ নির্মাণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রবাসী কমিউনিটি নেতা এমসি কলেজের সাবেক ভিপি খসরুজ্জামান খসরু। তার এই ঘোষনাটি ফেইসবুকে দেখে হৃদয়ে সিলেট মুজিব ফোর্স গৃহ নির্মানে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলো।

এতে কানাইঘাটের লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ চৌধুরী, বিরদল এন এম একাডেমির প্রধান শিক্ষক জার উল্লাহ ও বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা মামুন রশীদ মামুনের তত্বাবধানে কানাইঘাটের সুনাতন পুঞ্জি এলাকার খাইবাড়ী নামক স্থানে ফাতেমার নিজস্ব ভুমিতেই ফাতেমা কুঠির নির্মান করে গত ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের দিন তা হস্তান্তর করা হয়।

প্রবাসী কমিউনিটি নেতা ভিপি খসরুজ্জান খসরু বলেন, যারা ফাতেমা কুঠির নির্মাণে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাদের সবার কাছেই তিনি বিনয়ের সাথে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের উচিত প্রকৃত অসহায়, বৃদ্ধ এসব লোকজনের পরিবারের সহযোগীতায় এগিয়ে আসা।