রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সন্তান প্রসবের কয়েক মিনিট আগে বিয়ে



লাইফ স্টাইল:: সন্তান প্রসব করবেন এক মা। চিকিৎসকরা বলে দিয়েছেন, সিজারিয়ান অপারেশন করাতে হবে তার। হাসপাতালে এপয়েন্টমেন্টও করা। এমন অবস্থায় ওই মা তার পার্টনারকে সঙ্গে নিয়ে ছুটে গেলেন একজন মেয়রের অফিসে।

তাকে বললেন, তাদেরকে বিয়ে পড়িয়ে দিতে। তখনও বিয়ের আংটি প্রস্তুত হয় নি। মেয়র আর কি করবেন! অগত্যা একটি ফিতা বেঁধে দিলেন হাতে। পড়িয়ে দেয়া হলো বিয়ে।
এর কয়েক মিনিট পরেই ওই নারী প্রসব করলেন একটি মেয়ে সন্তান।

না, এটি কোনো বানানো গল্প নয়। সত্যি এ ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা রাজ্যের সাউথ বেন্ডে। সেখানকার মেয়র পিটি বুতিগিয়েগ। তিনি এবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দল থেকে মনোনয়ন চাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রকাশ্যে তিনি নিজে সমকামিতা পছন্দ করেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। যদি মনোনয়নে তিনি টিকে যান তাহলে এটিই হবে বড় রাজনৈতিক দলটির জন্য প্রথম প্রকাশ্যে সমকামিতাকে পছন্দকারী একজন প্রার্থী।

পিটি বুতিগিয়েগ তার ফেসবুকে ওই দম্পতির প্রসঙ্গে লিখেছেন। তিনি বলেছেন, ওই দম্পতি হলেন মেরি এবং গাবে। ঘটনার দিন সকাল প্রায় ৮টা ১৫ মিনিটের দিকে তারা পড়িমড়ি করে তার অফিসে ছুটে যান এবং বিয়ে পড়িয়ে দিতে বলেন। ব্যাস, অফিসের স্টাফরা সাক্ষী থাকলেন। তাদের উপস্থিতিতে এই দম্পতির হাতে পরিয়ে দেয়া হলো ফিতা। হয়ে গেল বিয়ে।

এর ৪৫ মিনিট পরে সিজারিয়ান অপারেশনের সময় নির্ধারণ করা ছিল মেরির জন্য। তিনি অপারেশন থিয়েটারে ডাক্তারদের ছুরির নিচে নিজেকে সঁপে দিলেন। জন্ম দিলেন একটি মেয়ে সন্তান। সন্তানের নাম রাখা হলো জেড ক্যাথেরিন জোনস। মেয়র পিটি তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, তার সবচেয়ে নবীন অধিবাসী এসেছেন সাউথ বেন্ডেতে। যখন আমার মেয়র হিসেবে মেয়াদ শেষ হবে তখন এই মুহূর্তটাকে আমি স্মরণে রাখবো। নবাগত ও তার পিতামাতাকে অভিনন্দন। স্বাগতম জেডকে এই ভালবাসার দুনিয়ায়।