বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জৈন্তাপুরে জাতীয় পার্টির চশমা মার্কায় সমর্থন করায়, সর্বত্র সমালোচনার ঝড়



জৈন্তাপুর প্রতিনিধি:: নতুন সুর্যের হাসিতে হাসতে চান অনেকেই। মাত্র কয়েক ঘন্টার পর অনুষ্টিতব্য পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কে সামনে রেখে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭জন প্রার্থী প্রচারনা চালিয়েছেন।

মধু সংগ্রহ করতে মৌমাছি যে ভাবে শষ্য ক্ষেত্রে মহড়া চালায় তেমনি মহড়া দিচ্ছেন অংশ গ্রহনকারী প্রার্থী কিংবা তার সমর্থকেরা। কাক ডাকা ভোর হতে গভীর রাত পর্যন্ত তারা প্রচারনা চালাচ্ছেন।

জাতীপার্টির উপজেলা জাতীয় পার্টি এর চশমা মার্কায় সর্মথন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আলোচনা সমালোচনার ঝর শুরু হয়েছে। এতে করে জৈন্তাপুরের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন মত প্রার্থক্য। এবং তার ভোট ব্যাংক চলে যাচ্ছে সবাই চশমার পক্ষে যা তাদের দায়িত্বশীলদের লেখা থেকে জানা গেল।

জাতীপার্টির ফেইসবুকে স্ট্যাটার্স এর লেখা পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো “বিজ্ঞপ্তি প্রসঙ্গ ;- জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এতদ্বারা জৈন্তাপুর উপজেলা জাতীয় পার্টি ও অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে,আসন্ন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে /চেয়ারম্যান /ভাইস চেয়ারম্যান /মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান/ পদে জাতীয় পার্টি কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন কিংবা সমর্থন করেনি, যে সকল নেতা কর্মী ও সমর্থক নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে সমর্থন করেছেন কিংবা পক্ষে কাজ করছেন, এগুলো তাদের একান্ত ব্যাক্তিগত ব্যাপার মাত্র, এর সাথে দলের নুন্যতম কোনো সম্পর্ক নেই”

অপরএক স্ট্যাটার্স এ জাতীপার্টির সভাপতি আলহাজ্ব ইসমাইল আলী আশিক এর লেখা পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো “আমাদের জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির কোন প্রার্থী না থাকায় জনগন মনোনীত ভাইস চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থী মাওলানা কবির আহমদ কে সমর্থন করিলাম। দল মত নির্বিশেষে সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করি”

এবিষয়ে জাতীয় পার্টির সভাপতি আলহাজ্ব ইসমাইল আলী আশিক এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাচনে জাতীয় পার্টির কোন প্রার্থী নেই তাই যোগ্য প্রার্থী হিসেবে জাতীয়পার্টি মনে করে মাওলানা কবির কে একজন দ্বীনদার হিসেবে সর্বমহলে গ্রহনযোংগ্যতা রয়েছে। আমরা জৈন্তাপুর উপজেলা জাতীয় পার্টি ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা কবির আহমদ (চশমা) প্রতিক কে সর্মথন করিলাম। তিনি আরো জানান জৈন্তাপুর একটি আলেম উলামার দেশ এখানে জাতিয়পার্টি মনে করে উপযোক্ত প্রার্থী হলেন মাওলানা কবির আহমদ। তাই উনাকে সর্ব প্রকার সহযোগীতা করে শেষ বিজয়ের হাসি দেখতে চাই।

এবিষয়ে জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বলেন- আমাদের দলীয় কোন প্রার্থী না থাকায় আমরা বলে দিয়েছি আপনাদের প্রসন্দের প্রার্থী কে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাদিক জাতীয় পার্টির নেতারা বলেন বশির মিয়া একজন স্বার্থপর, বেইমান, তাকে কখনো আর দলের নেতা কর্মিগন সর্মথন করবেনা। এমন কি মাঠে দেখাও যায়নি বশির মিয়া (মাইক) এর পক্ষে জাতীয় পার্টির কোন নেতা কর্মি।