বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেট আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা : উদ্বোধনের জন্য চলছে প্রস্তুতি



সিলেট :: সিলেট ৫ম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় চলছে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কর্মস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে আয়োজিত মাসব্যাপি এ মেলার উদ্বোধন হবে আগামী (৯ মার্চ) শনিবার বেলা দুইটায়। নগরীর শাহি ঈদগাহস্থ সদর উপজেলার খেলার মাঠ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এমনই তথ্য জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন চেম্বারের সদস্য ও বাণিজ্য মেলার প্রধান সম্নয়ক এম এ মঈন খান বাবলু।
তিনি আরো জানান, এবারের আর্ন্তজাতিক বাণিজ্য মেলায় রয়েছে দেশ-বিদেশের ৩৫ টি প্যাভিলিয়ন ও ১২০ টি স্টল। আগামী শনিবার থেকে (৯ মার্চ) শুরু হতে যাওয়া আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার এই বিশাল কর্মযজ্ঞে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে মেলার স্টলগুলোতে আসতে শুরু করেছে পণ্য।
তিনি জানান, এবারের মেলাটি আর্ন্তজাতিকভাবেই পরিচালিত হবে। মেলায় শিশুদের জন্য রয়েছে অত্যাধুনিক মানের শিশুপার্ক। বিনোদনের জন্য রয়েছে যাদুর প্যান্ডেল, গেইম অব ডেঞ্জার, থ্রি-ডি, দরিমন, স্লিপার, ওয়াটার বল, ওয়াটার বুথ, জাম্পিং সহ নানা ধরণের আইটেম। তাছাড়া মেলায় আগত মুসল্লীদের জন্য রাখা হয়েছে মসজিদ। নিরাপত্তার স্বার্থে মেলায় থাকবে সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ও নিজস্ব সিকিউরিটি গার্ড। আগতদের সুবিধার্থে রাখা হয়েছে বিশাল পার্কিং ও গণশৌচাঘর।
স্টল নির্মাণ কাজের সঙ্গে জড়িত শ্রমিকরা বলেন, সকল কাজ শেষের দিকে, যে কাজ রয়েছে, তা মেলা উদ্বোধন হওয়ার আগেই শেষ হবে। তবে কিছু কিছু স্টলের নির্মাণ কাজ বাকি থাকতে পারে।
মেলার মেইন গেটের অবকাঠামো নির্মাণের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে। সেখানকার কর্মরত শ্রমিকরা জানান, গেট নির্মাণের অনেক কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। উদ্বোধনের আগেই গেট নির্মাণের কাজ শেষ করবেন তারা।
সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বারের সচিব জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, আগামী শনিবার (৯মার্চ ) থেকে শুরু হওয়া মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা শুরু হয়ে মেলা চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। মেলার প্রবেশ মূল্য ২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর টিকেটের উপর রয়েছে র‌্যাফেল ড্র। তাছাড়া প্রতিবন্ধীদের জন্য ফ্রি প্রবেশ টিকেট দেয়া হবে এবং শিশু প্রতিবন্ধীদের জন্য মেলার সকল রাইড থাকবে উম্মুক্ত। মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও বিভিন্ন পণ্যের জন্য রাখা হয়েছে ১২০টি স্টল। মেলায় থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, নেপাল, চীন, ভারত, পাকিস্তান সহ বেশ কয়েকটি দেশের প্যাভিলিয়ন থাকবে।