বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা আব্দুল মতিন এর ইন্তেকাল: জানাজা সম্পন্ন



স্টাফ রিপোর্ট:: বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন, পশ্চিম সিলেটের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র, খলিফায়ে ফুলতলী বিশ্বনাথ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ভুরকী হাবিবিয়া হাফিযিয়া দাখিল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম হযরত মাওলানা আব্দুল মতিন এর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

রবিবার রাত ৯ টায় প্রতিষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী ভুরকী হাবিবিয়া হাফিযিয়া দাখিল মাদরাসা সংলগ্ন মাঠে তাঁর জানাযার নামায অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় হাজার হাজার মুসল্লিরা অংশ গ্রহন করেন। জানাজা শেষে তাঁর প্রতিষ্টিত মাদরাসার সম্মূখে দাফন করা হয়েছে।
রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯) সকাল ৯ টায় তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, ৫ ছেলে ও ২ মেয়ে সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর ইন্তেকালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মাওলানা আব্দুল মতিন অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন আলিম ও বুযুর্গ ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তিনি ১৯৫৪ সালে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার ভুরকী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৬ সালে সৎপুর দারুল হাদীস কামিল মাদরাসা থেকে কামিল পাশ করেন। ১৯৭৭ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত তিনি সৎপুর কামিল মাদরাসায় শিক্ষকতায় নিয়োজিত ছিলেন।
তিনি ১৯৭৭ ইং সনে ভুরকী হাবিবিয়া হাফিযিয়া দাখিল মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করেন এবং আমৃত্যু এর মুহতামিম হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। জানাজার পূর্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় উপস্থিত আলেম উলামা ও হাজার হাজার মুসল্লিগণ তার রেখে যাওয়া দ্বীনি প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন খিদমত অব্যাহত রাখার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেণ।

বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়ার সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফিজ মাওলানা নজীর আহমদ হেলাল ও মতিনিয়া-শহিদিয়া হুফ্ফাজুল কুরআন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হুছাইন মোহাম্মদ আরজ আলীর পরিচালনায় জানাপূর্ব জমায়েতে বক্তব্য রাখেন- সায়খুল হাদিস হযরত আল্লামা হবিবু রহমান, বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র সভাপতি হযরত মাওলানা হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী, সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শফিকুর রহমান চৌধুরী, সৎপুর দারুল হাদিস কামিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা শফিকুর রহমান, বতর্মান অধ্যক্ষ মাওলানা আবু জাফর মোহাম্মদ নোমান, উপাধ্যক্ষ মাওলানা ছালিক আহমদ, হযরত শাহ জালাল দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ কুতুবুল আলম, হযরত আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.) এর নাতি হাফিজ মাওলানা মারজান আহমদ চৌধুরী, তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মুহাম্মদ মুহিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন জাহেদ, যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাওলানা রফিক আহমদ, গোবিন্দ নগর ফজলিয়া সিনিয়র মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুস ছালাম, সৎপুর কামিল মাদসার সহযোগী অধ্যাপক মাওলানা রশিদ আহমদ চৌধুরী, বিশ^নাথ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পংকি খান, লামাকাজি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, হাওসা আলিম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আজিজ আহমদ, মতিনিয়া-শহিদিয়া হুফ্ফাজুল কুরআন পরিষদের সভাপতি মাওলানা আব্দুল গফফার আল হাসান, ভূরকি হাবিবিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার শিক্ষক হাফিজ মাওলান শফিকুর রহমান।
অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ভূরকি হাবিবিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার প্রধান শিক্ষক হাফিজ মোহাম্মদ আব্দুস শহীদ (বড় হুজুর), ছাতক উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, বিশ^ানা উপজেলা চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী, বিশ^নাথ আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নোমান আহমদ, সৎপুর দারুল হাদিস কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ছালেহ আহমদ বেতকুনি, আনজুমানে আল ইসলাহ’র কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান, সিলেট মহানগর আল ইসলাহ’র সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আজির উদ্দিন পাশা, সুনামগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাহবুর রহমান তাজুল, সুনামগঞ্জ জেলা তালামীযে ইসলামিয়ার সভাপতি রফিকুল ইসলাম তালুকদার, পশ্চিম জেলা সভাপতি জাহেদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার, হাফিজ আব্দুল কাদির, হাফিজ আশিকু রহমান, হাফিজ মাওলানা আব্দুল মুকিত, হাফিজ সিরাজুল ইসলাম, হাফিজ নুর মোহাম্মদ তালুকদার, হাফিজ আব্দুল কাইয়ুম ও ক্বারি মামুনুর রশিদ প্রমুখ।