বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চুনারুঘাটে ইসলামী ফ্রন্টের জাতীয় নির্বাচন পরবর্তী পর্যালোচনা সভা



চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি:: বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব জননেতা আল্লামা এম.এ মতিন বলেন বিগত ৩০ ডিসেম্বর ১৮ এর জাতীয় নির্বাচন হচ্ছে ক্ষমতা রক্ষা তথা জঙ্গী তৎপড়তা বন্ধের নির্বাচন।

এ নির্বাচনে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট অংশগ্রহণ করে পরাজিত হলেও জনগণ তথা দেশ ও জাতির উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার মতো মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আদর্শবাহী একটি রাজনৈতিক দলের পরিচয় দিয়েছে।

তাই আগামী উপজেলা এবং ভবিষ্যতে জাতীয় নির্বাচনসহ প্রত্যেকটি নির্বাচনে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট জনগণের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে অংশগ্রহণ করবে। এ লক্ষ্য নিয়ে অবহেলিত বঞ্চিত মানুষের পাশে থাকার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা প্রদান করেন। এম. এ. মতিন আরো বলেন ৯৪ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর কেন্টিনে তৎকালীন ছাত্রনেতা থাকাকালীন তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জামাত শিবির তথা জঙ্গী তৎপড়তা নির্মূলের দাবী জানিয়েছিলেন।

এ দাবী বর্তমান সরকারের আমলে বাস্তবায়ন হওয়ার পথে। (৯ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ২ ঘটিকায় স্থানীয় উপজেলাস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামূল হক মোস্তফা শহীদ অডিটরিয়ামে চুনারুঘাট মাধবপুর নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী আলহাজ্ব মাওলানা ছোলাইমান খান রাব্বানীর নির্বাচন পরবর্তী পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি মুফতি মুসলিম খানের সভাপতিত্বে ও মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম তরফদার এবং মোঃ শফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল, সাংবাদিক এস. এম. সুলতান খান এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভা উদ্বোধন করেন পীরে তরীক্বত আল্লামা আব্দুল করিম সিরাজনগরী।

প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব জননেতা আল্লামা এম.এ মতিন। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য বিশিষ্ট শিল্পপতি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী হারুন, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সচিব আলহাজ্ব মাওলানা আলী মোহাম্মদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শাহজালাল আহমদ আখঞ্জী, এডভোকেট ইসলাম উদ্দিন দুলাল, জেলা সভাপতি অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মাওলানা কাজী আবুল খায়ের শানু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারোয়ারে আলম, মাস্টার মোঃ মঈনুল ইসলাম খান, যুবনেতা নূরুল হক চিশতী, সাবেক ছাত্রনেতা সাইফুল ইসলাম নিজামী, আব্দুল ওয়াহেদ বাচ্চু, হাফেজ জুবায়ের আহমেদ, জাহেদুল ইসলাম বিএইচসি, মাওলানা খায়রুদ্দিন, যুবনেতা মুহিবুল ইসলাম মুহিব, হাবিবুর রহমান, জেলা ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ আলী, হাফিজ আহমদ তালুকদার, আজিজ ইকবাল, মামুনুর রশীদ প্রমুখ। সভা শেষে উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সাবেক সভাপতি শহিদ আলহাজ্ব আবুল হোসেন আকল মিয়ার কবর জিয়ারত করেন মহাসচিব এম.এ মতিনসহ কেন্দ্রীয় জেলা নেতৃবৃন্দ।