শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কানাইঘাটে অগ্নিকান্ডে ২টি বাণিজ্যিক মার্কেটের ৫০টি দোকান পুড়ে ছাই : কোটি টাকার ক্ষতি



আলিম উদ্দিন, কানাইঘাট থেকে:: কানাইঘাট পুর্ব বাজারে গতকাল শুক্রবার বিকাল ৩টায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে অন্তত ৫০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের সহযোগীতায় বিকাল সাড়ে ৪টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা ও কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ মার্কেট পরিদর্শন করে ব্যবসায়ীদের আর্থিক সহযোগীতার আশ্বাস প্রদান করেছেন।
জানা যায়, কানাইঘাট পূর্ব বাজারস্থ ডাক বাংলো সংলগ্ন টিন সেডের তৈরি আল আব্বাস মার্কেট ও সুরমা মার্কেটে হঠাৎ করে আগুন দেখতে পান স্থানীয়রা। মুর্হুতে মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা পুরো মার্কেটে ছড়িয়ে পড়লে মার্কেটের প্রায় ৫০টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সময় কানাইঘাট থানার বিপুল সংখ্যক পুলিশ, বাজারের ব্যবসায়ীবৃন্দ ও স্থানীয় লোকজন প্রায় ঘন্টা খানেক চেষ্টা চালিয়ে আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ সময় খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সিলেট সেনানিবাস ইউনিট, সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলা ইউনিট ও জৈন্তাপুর উপজেলা ইউনিট এসে প্রানপন চেষ্টা চালিয়ে বিকাল সাড়ে চারটার দিকে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হন। এ সময় উভয় মার্কেটের অন্তত ৫০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুরোপুরি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয়রা ধারণা করছেন বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটতে পারে।
আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ দোকানগুলো হল- আব্বাস মার্কেটের তুতা মিয়ার বিসমিল্লাহ অটো রাইস মিল, হিমাংসু দে’র অমি টেইলার্স, মজমুলের মজমুল ইলেক্ট্রনিক্স, রবি মালাকারের রবি ইলেক্ট্রনিক্স, জাকারিয়ার হান্নান মাইক সার্ভিস, এখলাছ উদ্দিনের এখলাছ এন্টারপ্রাইজ, আহমদ কাওছারের ইয়াসমিন ভেরাইটিজ স্টোর, কিশোর মালাকারের কিশোর হেয়ার কাটিং, মোহাম্মদ আলীর মোহাম্মদ ট্রেডার্স, হোসেন আহমদের হাজী সমছুল হক ফার্ণিচার, এবাদুর রহমান হেলালের হেলাল ফার্ণিচার, মুজিবুর রহমানের মুজিব স্টোর, হারুন উদ্দিনের হারুন স্টোর, বশির আহদের বশির ফার্ণিচার, মোহাম্মদ মোস্তফার মোস্তফা স্টোর, মখলিছুর রহমানের শামিম ফার্ণিচার, মাসুক আহমদের মাসুক এন্টারপ্রাইজ। এছাড়া সুরমা মার্কেটের হেলাল আহমদের হেলাল এন্টারপ্রাইজ, ফারুক আহমদের ফারুক ফার্ণিচার, আব্দুস সুক্কুরের তাওহিদ ফার্ণিচার, আব্দুল হেকিম শামীমের হেকিম এন্টারপ্রাইজ, মুক্তিযোদ্ধা আলিম উদ্দিনের আলিম ট্রেডার্স, নুরুল হকের নুরুল হক ফার্ণিচার, আব্দুছ ছুবহানের ডালিম ক্রোকারিজ সহ অন্তত ৫০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
এদিকে বিকাল ৫টায় কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা, কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন আল মিজান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) লুসিকান্ত হাজং, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফারহানা আক্তার অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ মার্কেট পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের আর্থিক সহযোগীতার প্রদানের আশ্বাস দেন।
এদিকে কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন বলেন, আমরা অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করছি। সেই সাতে ক্ষতিগ্রস্থদের আর্থিক সহযোগীতা প্রদানের জন্য প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করছি। শীগ্রই ক্ষতিগ্রস্থদেরকে কানাইঘাট পৌরসভার পক্ষথেকে আমরা আর্থিক সহযোগীতা প্রদান করবো।