সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আশা করি, আর প্রশ্নফাঁস হবে না: শিক্ষামন্ত্রী



জাতীয় ডেস্ক:: মন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁসের সব অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রশ্নফাঁস বন্ধে যত ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, তার সব পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে। এছাড়া কোনোভাবেই যেন প্রশ্নফাঁস হতে না পারে সে বিষয়ে আমাদের কঠোর নজরদারি থাকবে।

দীপু মনি বলেন, শনিবার বিভিন্ন জেলায় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রশ্ন বিতরণে ভুল ধরা পরেছে। ২০১৮ সালের প্রশ্ন বিতরণ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

‘বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বোর্ড চেয়ারম্যানের কাছে কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ভুল ও অসঙ্গতি বিষয়ে যেখানে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া দরকার ছিল, তা নেয়া হয়েছে। প্রশ্নফাঁস রোধে যা যা করা প্রয়োজন সব করা হচ্ছে। আশা করি, আর প্রশ্নফাঁস হবে না।

প্রসঙ্গত, কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে শনিবার সারাদেশে একযোগে শুরু হয় মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা।

এ পরীক্ষার প্রথম দিন বাংলা ১মপত্র পরীক্ষা শুরুর আগে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ না পাওয়া গেলেও পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষাটির বহুনির্বাচনী প্রশ্ন এবং সৃজনশীল প্রশ্ন ফেসবুকে পাওয়া গেছে।

পরীক্ষা শেষে আসল প্রশ্নের সঙ্গে বহুনির্বাচনী প্রশ্নের মিল না পাওয়া গেলেও সৃজনশীল প্রশ্নের হুবহু মিল পাওয়া গেছে।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও সাতক্ষীরায় ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়া হয়। কুমিল্লার দেবিদ্বারে পাশের কেন্দ্র থেকে প্রশ্নপত্র এনে নির্ধারিত সময়ের ৪০ মিনিট পর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।