সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ওসমানীনগরে ব্যবসায়ী ইউনুছ হত্যার রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার : ৪



শাহীন চৌধুরী, ওসমানীনগর থেকে :: সিলেটের ওসমানীনগরে অটোরিক্সা ডেকুরেশন ব্যবসায়ী ইউনুছ মিয়া খুনের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হল – ওসমানীনগর উপজেলার আব্দুল্লাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল বারিকের ছেলে ফয়েজ আহমদ (২০), একই উপজেলার উত্তর কালনীচর গ্রামের ধন মিয়ার ছেলে ফাহিম আহমদ (২১), বিশ্বনাথ উপজেলার মুকত্তির গাঁও গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা (বর্তমান ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর কদমতলাস্থ নয়াবাড়ি কাজিরগাও গ্রামের ভাড়াটিয়া কলম মিয়ার ছেলে বাদশা মিয়া (২৩) ও নেত্রকোন জেলার মদন থানার গঙ্গানগর গ্রামের (বর্তমানে দুলিয়ারবন্দস্থ টিটু মিয়ার ভাড়াটি) হাদিছ মিয়ার ছেলে মো: অলিউর রহমান অলি (১৯)।

শুক্রবার বিকেল ৩টায় ওসমানীনগর থানায় সাংবাদিকদের সাথে এক প্রেসবিফিংকালে থানা পুলিশ জানায় আসামীরা বহুদিন ধরে ইউনুছ মিয়াকে তার দোকান থেকে সরানোর পরিকল্পনা করছে। পরিকল্পনামতে ঘটনার রাতে অটোরিক্সা ডেকুরেশন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘মায়ের দোয়া সিট সেন্টার’র মালিক ইউনুছ মিয়া প্রতিদিনের মতো তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঘুমাতে যান।

মধ্য রাতে তার দোকানের কর্মচারী বাদশা মিয়াসহ চিহ্নিত অপর আসামীরা তাকে ঢেকে দোকান থেকে বের করে তাদেরকে দেখে ইউনুছ মিয়া বাহিরে প্রসাব করতে যায়।

হত্যাকারীরা পিছু পিছু গিয়ে তাকে কিল ঘুষি মারতে মারতে দোকানের ভিতরে নিয়ে আসে এবং দস্তাদস্তি করে ইউনুছ মিয়ার হাত পা বেধে তাকে এলোপাতারি ভাবে মারতে থাকে এসময় লোহার রড দিয়ে তার মাথার বাম পাশে আঘাত করিলে ঘটনাস্থলে ব্যবসায়ী ইউনুছ মিয়া মারা যায় এবং হত্যাকারীরা মৃত নিশ্চিত করে তাকে কম্বল মুড়ি দিয়ে রেখে তার সাথে থাকা নগদ ১৪শ টাকা লুট করে নিয়ে চলে যায়।

পরদিন সকালে ঐ কর্মচারী বাদশাহ প্রতিদিনের মত দোকানে এসে সাটার খুলে তার মালিক ইউনুছ মিয়ার রক্তাত্ব লাশ দেখে নাটকীয় ভাবে চিৎকার করে এলাকার লোকজন জড়ো করে।

এসময় স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যবসায়ী ইউনুছ মিয়ার লাশ উদ্ধার করে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে, ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এসময় সন্দেহজনক ভাবে পুলিশ নয় জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আটকৃতদের প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে উল্লেখিত আসামীরা ব্যবসায়ী ইউনুছ হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে পুলিশ জানায়।

ব্রিফিংকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) মো: সাইফুল ইসলাম জানান গ্রেফতারকৃত আসামীরা পরিকল্পিত ভাবে ব্যবসায়ী ইউনুস আলীকে খুন করেছে বলে প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এ ঘটনায় ইউনুছ মিয়ার ভাই ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং – ১৭, তাং- ৩০/০১/২০১৯ ধারা ৩০২/৩৪ দঃবিঃ। আসামীদের শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হবে এবং এ ঘটনার সাথে আর কেউ জড়িত আছে কিনা সে বিষয়ে জানতে আসামীদের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।