মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১, ২০ ২০
শিক্ষা ডেস্ক
২৪ অক্টোবর ২০ ২০
২:২৫ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সংবাদ সম্মেলন 

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের ০৯/০৩/১৪ হতে ১৪/১২/১৫ পর্যন্ত সময়ের প্রাপ্য টাইমস্কেল প্রদানের বিষেয় অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারীকৃত ১৫/১০/২০ তারিখের ১৪১ নং পত্রটি জরুরী ভিত্তিতে প্রত্যাহার ও সহকারি শিক্ষকদের বেতনস্কেল ১০ম গ্রেডে উন্নীতকরণসহ ১০ দফা দাবিতে আজ ২৪ অক্টোবর শনিবার সকাল ১১টায় রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটের সাগর রুনি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।

সমিতির সভাপতি ওয়েছ আহমেদ চৌধুরী, নির্বাহী সভাপতি জাহিদুর রহমান বিশ্বাস মহাসম্পাদক আনোয়ার হোসেন ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত পত্রে উল্লেখিত ১০ দফা দাবীগুলো হলোঃ

১। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের ০৯/০৩/১৪ হতে ১৪/১২/১৫ পর্যন্ত সময়ের প্রাপ্য টাইমস্কেল প্রদানের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারীকৃত ১৫/১০/২০ তারিখের ১৪১ নং পত্রটি জরুরী ভিত্তিতে প্রত্যাহার করে টাইমস্কেল প্রদানের ব্যবস্থা করা।
২। (ক) বর্তমান প্রধান শিক্ষকদের যোগ্যতা ও দায়িত্বের কথা বিবেচনা করে ৮ম গ্রেডে উন্নীত করা ।

(খ)সহকারি প্রধান শিক্ষকের পদ সৃষ্টিসহ ৯ম গ্রেডে বেতন স্কেল নির্ধারন করা ।

(গ) স্নাতক/স্নাতেকাত্তর শিক্ষাগত যোগ্যতার পরিপ্রেক্ষিতে সংগত কারেণই সহকারি শিক্ষকদের বেতনস্কেল বর্তমান বেতনস্কেলের ১০ম গ্রেডে উন্নীত করা ।

৩। চলিত দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের দ্রুত পদোন্নিতর ব্যবস্থা করা।

৪/ সমন্বিত নিয়োগবিধিতে শুধুমাত্র সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রদান করা উক্ত পদ থেকে
প্রাথমিক শিক্ষা প্রশাসেনর সর্বোচ্চ পদ পর্যন্ত পদোন্নিতর মাধ্যমে পূরণ করা ।

৫। প্রাথমিক শিক্ষা সম্পর্কীয় বিভাগীয় নীতিনির্ধারনী সিদ্ধান্ত গ্রহনের ক্ষেত্রে সাংগঠনিক
প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা ।

৬।সরকারি প্রাথমিক শিক্ষকেদর অবিলম্বে ননভেকশনাল কর্মচারী হিসাবে ঘোষণা করে অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের ন্যায় সুযোগ সুবিধা প্রদান করা।

৭।অবিলম্বে দেশের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা কার্যকর করা।

৮। সরকারি কর্মচারীদের ন্যায় সরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ২দিন সরকারি ছুটি ঘোষণা করা ও দিনে সর্বোচ্চ ৪টি পিরিয়ড পাঠদানের ব্যবস্থা করা ।

৯। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির প্রতিনিধিদের নিয়ে অবিলম্বে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক কল্যান ট্রাষ্টিবোর্ড কার্যক্রম গতিশীল করা ।

১০। শিক্ষকদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণে (বিভাগীয়) শুধুমাত্র শিক্ষকদের মধ্য থেকে প্রশিক্ষক নির্বাচন করা। 

উক্ত দাবী সমূহ বাস্তবায়িত হলে সরকারের তেমন অর্থনৈতিক সংশ্লিলষ্টতা থাকবে না বিধায় শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব সরকার প্রধান ও বঙ্গবন্ধুর সুযাগ্য কন্যা জননেত্রী, দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সেই সাথে উক্ত দাবী সমূহ বাস্তবায়নের জন্য  সাংগঠনিক কর্মসূচী ঘোষনা করেছেন, ১। ১নভেম্বর/২০২০ বিকাল  ৪.৩০ ঘটিকার সময় দেশের সকল জেলায় শিক্ষক সমােবশ ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট জেলা কমিটির উদ্যোগে স্মারকলিপি পেশ ।২।১৫ নভেম্বর/২০২০ থেকে ৩০ নভেম্বর/২০২০ বিভাগীয় সমােবশ । ৩।১৮ ডিসেম্বর/২০২০ ঢাকায় সমাবেশ ও সমাবেশ থেকে দাবী আদায়ের পরবর্তী কর্মসূচী ঘোষণা।
 

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য