মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১, ২০ ২০
খেলাধুলা ডেস্ক
২৮ অক্টোবর ২০ ২০
৬:৪৯ পূর্বাহ্ণ
বার্সেলোনা জুভেন্টাস মুখোমুখি
স্বপ্নের মহারণ : দুই পরাশক্তির দ্বৈরথ

গ্রুপপর্বের ড্র’র পর থেকে এই ম্যাচের কথা সবার মুখে মুখে। জুভেন্টাস বনাম বার্সেলোনা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে স্বপ্নের মহারণে আজ দেখা হচ্ছে দুই পরাশক্তির। কিন্তু করোনার হানায় ম্যাচের মূল আকর্ষণ ম্লান হতে চলেছে।

বার্সা-জুভেন্টাস লড়াই নিয়ে চায়ের কাপে ঝড় ওঠার কারণ ছিল প্রায় আড়াই বছর পর দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর লড়াইয়ের সম্ভাবনা। সেই সম্ভাবনার পাশে প্রশ্নবোধক চিহ্ন বসে গেছে রোনাল্ডো করোনায় আক্রান্ত হওয়ায়।

ম্যাচের ২৪ ঘণ্টা আগে নিজেকে করোনা নেগেটিভ প্রমাণ করতে না পারলে ঘরের মাঠে আজ খেলা হবে না জুভেন্টাসের পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রোনাল্ডোর সর্বশেষ করোনা পরীক্ষার ফল জানা যায়নি।

জুভেন্টাস কোচ আন্দ্রে পিরলো অবশ্য রোনাল্ডোকে পাওয়া যাবে না ধরে নিয়েই রণকৌশল সাজাচ্ছেন। এই ম্যাচে তারও কিছু হিসাব চুকানোর আছে। ২০১৫ সালের ফাইনালে জুভেন্টাসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে নিজেদের সবশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিল বার্সেলোনা। জুভেন্টাসের খেলোয়াড় হিসেবে সেটাই ছিল পিরলোর বিদায়ী ম্যাচ। ডাগআউটে দাঁড়িয়ে সেই দুঃখ ভোলার সুযোগ এসেছে তার সামনে। দু’দলই বাজে সময় পার করছে। জয় দিয়ে ইউরো অভিযান শুরু করলেও লিগে বেহাল দশা তাদের। লা লিগায় টানা তিন ম্যাচে জয়বিহীন বার্সা। ঘরের মাঠে ক্লাসিকো হারের দুঃস্মৃতি এখনও টাটকা। পেনাল্টি ছাড়া গোল করতেই যেন ভুলে গেছেন অধিনায়ক মেসি। আরেক ফরোয়ার্ড আঁতোয়া গ্রিজমানও ফর্মে নেই। চোটের থাবায় ছিটকে গেছেন ফিলিপে কুতিনিও। নিষেধাজ্ঞার কারণে নেই জেরার্দ পিকে। কোচ রোনাল্ডো কোমানের বড় ভরসা এখন টিনএজ সেনসেশন আনসু ফাতি।

জুভেন্টাসের কোচ হিসেবে এখনও হারের তেতো স্বাদ না পাওয়া পিরলোও স্বস্তিতে নেই। সেরি-এ লিগে শেষ চার ম্যাচের তিনটিই ড্র করেছে তুরিনের বুড়িরা। দিবালা, মোরাতারা পারছেন না রোনাল্ডোর শূন্যতা পূরণ করতে।

সাম্প্রতিক ইতিহাসও তাদের অনুকূলে নেই। বার্সার বিপক্ষে শেষ তিন ম্যাচে গোলই করতে পারেনি জুভেন্টাস। সব মিলিয়ে দু’দলের আগের ১১ ম্যাচে বার্সার চার জয়ের বিপরীতে জুভেন্টাসের জয় তিনটি। বাকি চার ম্যাচ ড্র হয়েছে। ৮ ডিসেম্বর ন্যুক্যাম্পে আবার দেখা হবে দু’দলের।

আজ বড় ম্যাচ আছে আরেকটি।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে জার্মান ক্লাব লিপজিগকে আতিথ্য দেবে ম্যানইউ। গত সপ্তাহে পিএসজির মাঠে ২-১ গোলে জিতলেও লিগে নিজেদের হারিয়ে খুঁজছে ম্যানইউ। এ মৌসুমে ঘরের মাঠে এখনও জয় পায়নি উলে গুনার সুলশারের দল। বুন্দেসলিগার শীর্ষে থাকা লিপজিগের বিপক্ষে সেই গেরো খুলবে কি?

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আজ

গ্রুপ-ই

ক্রাসনোদার ও চেলসি

সেভিয়া ও রেনঁ

গ্রুপ-এফ

ক্লাব ব্রুগে ও ল্যাজিও

ডর্টমুন্ড ও জেনিত

গ্রুপ-জি

জুভেন্টাস ও বার্সেলোনা

ফেরেন্সৎভারোস ও ডায়নামো কিয়েভ

গ্রুপ-এইচ

বাসাকসেহির ও পিএসজি

ম্যানইউ ও লিপজিগ

(স্বাগতিক দল আগে)

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য