বৃহস্পতিবার, জুলাই ২, ২০ ২০
শিক্ষা ডেস্ক
২৪ জুন ২০ ২০
৯:২১ অপরাহ্ণ
মধুশহীদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে স্বেচ্ছচারিতা ও অনিয়মের অভিযোগ

সিলেট নগরীর ১১নং ওয়ার্ডে মধুশহীদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতি, অবৈধ কার্যক্রমের অভিযোগ করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। 
গতকাল মঙ্গলবার (২৩ জুন) সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে এসব তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে স্থানীয়রা অভিযোগ দায়ের করেন। 
অভিযোগে তারা উল্লেখ করেন, সেলিনা বেগম প্রধান শিক্ষিকা হওয়ার পর থেকেই নিয়মনীতির অনুসরণ না করে নিজের ইচ্ছেমতো বিদ্যালয় পরিচালনা করে আসছেন। তিনি স্থানীয় হওয়ায় নিজস্ব প্রভাব খাটিয়ে বিদ্যালয়ের কাজ করছেন। ইচ্ছে মতো স্কুলে আসেন, সময় মতো সভা আহ্বান করেন না, অভিভাবক ও বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সাথে খারাপ ব্যবহার, বিদ্যালয়ের ফান্ডের কোন হিসাব না দেওয়া, বিদ্যালয়ের ফান্ড না থাকার অজুহাতে বিভিন্ন দিবস পালন থেকে বিরত থাকা-সহ নানাবিধ অভিযোগের কথা উল্লেখ করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। 
এছাড়াও স্কুলের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরীকে নিজের ব্যক্তিগত কাজ করানো ও দপ্তরী না থাকায় স্কুলের তালা ভেঙ্গে কম্পিউটার সহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র চুরি হওয়ার ঘটনায় প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগের তীর রেখেছেন এলাকাবাসী। 
এসব ঘটনায় সুষ্ঠ তদন্ত করে প্রধান শিক্ষিকা সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ ও তাকে ওই স্কুল থেকে বদলী করে নতুন প্রধান শিক্ষক দেওয়ার জোর দাবি জানান তারা। 
অভিযোগ স্বাক্ষর করেছেন- মধুশহীদ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হাজী মল্লিক চৌধুরী, আলা উদ্দিন বাদশা, কামাল আহমদ, সাজ্জাদুর রহমান, এম.এ আজিজ, আব্দুর রহমান, মো. আবুল হান্নান প্রমুখ। 
এছাড়াও এলাকার প্রায় শতাধিক ব্যক্তি স্বাক্ষর করেছেন। 
 

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য