বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০ , ২০ ২০
লেখালেখি ডেস্ক
২০ এপ্রিল ২০ ২০
৮:৪২ অপরাহ্ণ
উদার প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন: কলেজ ছাত্রের খোলা চিঠি

সাংবাদিকদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে খোলা চিঠি লিখেছেন সিলেট এমসি কলেজের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্র নুরুল আমিন জনি। তার পুরো স্ট্যাটাস হুবুহু পাঠকদের জন্য তোলে ধরা হলো।
আসসালামুআলাইকুম
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী
গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
বিষয়ঃ করোনা ভাইরাসে মাঠ পর্যায়ের গণমাধ্যম কর্মীদের দিকে সুদৃস্টি দেওয়ার আবেদন।
জনাবা,
আমি একজন ছাত্র। আমি সিলেট এমসি কলেজে ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্র।দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে যে জায়গায় পুরো পৃথিবী নিস্তব্দ।সেই জায়গায় আপনি এবং বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষ প্রতিনিয়তই লড়াই করে যাচ্ছে।প্রশাসনসহ সকল পর্যায়ের কর্মীরাই এখন মাঠে নেমেছেন তাদের জীবন ঝুঁকি নিয়ে। আপনি আপনার উধার মনের পরিচয় দিয়েছেন ইতোমধ্যেই অনেক খ্যাতে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে। অসহায় মানুষদের পাশে আপনি দাঁড়িয়েছেন। আপনি দাঁড়িয়েছেন অন্যান্য অনেক পেশার মানুষের পাশে। সবার বাসায় খাবার পৌঁছে দেওয়া সব মাস শেষে বেতনেরও ব্যবস্থা করে দিয়েছেন এতেই বুঝা যায় আপনি কতো মহৎ। কিন্তু আজকে একটা জিনিস লক্ষ্য করলাম একজন সাংবাদিক বাসায় না খেয়ে আছেন, তারপর আরেক বড়ভাই যখন বাসায় বাইরে খাবার দিয়ে চলে এসে উনাকে কল করে বললেন আপনার বাইরে খাবার রাখা তখন তিনি রীতিমতো কেদেই দিলেন।বিষয়টি দেখে আমার চোখের পানি ধরে রাখতে পারলাম না। একটা জিনিস লক্ষ্য করলাম, প্রশাসন, ডাক্তাররা যেভাবে জীবন যুদ্ধ করছেন, ঠিক একইভাবে কিন্তু সাংবাদিকরাও করে যাচ্ছেন। আমাদের প্রতিদিনের খবর সব কিছু উনারা রাস্তায় থেকে করতেছেন। ইতোমধ্যে আমি শোনেছি ৪ জন সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি দেখে আমার মনে প্রশ্ন জাগলো আমাদের প্রধানমন্ত্রীতো অনেক উদার, তাই উনাকেই বলি সাংবাদিক ভাই-বোনদের প্রতি একটু সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে। তাদের পাশে দাঁড়ানো আমি এক ছোট শেখ রাসেলের মত ছাএ আপনার প্রতি আমার অনুরোদ দেশের গণমাধ্যম কর্মিদের পাশে দাঁড়ান তাদের পরিবারের সবাইকে বাঁচিয়ে রাখুন। আমি মনে করি আপনি কখনোই ফিরিয়ে দিবেন না। সাংবাদিকরা প্রতিটি সময় প্রতিটি কাজে সব সময় সামনে থাকেন। তারা নিজের জীবনের কথা  চিন্তা না করেই কাজ চালিয়ে যান। প্রতিটি বিশেষ জায়গায় বিশেষ কাজে আমি যতো ফটো বা ভিডিও দেখলাম সব জায়গায়ই উনাদের অবস্থান থাকে। তাই আমি আশা করি আপনি উনাদের জন্য ও অন্য সেক্টরের কর্মীদের মতো একটু সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন।কারণ উনারা আছেন বলেই এই সময়ে আমরা বাসায় বসে সব সত্য খবর পাই।

ইতি
নুরুল আমিন জনি

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য