মঙ্গলবার, জুন ২, ২০ ২০
আইন-অপরাধ ডেস্ক
৯ এপ্রিল ২০ ২০
৩:৩৯ অপরাহ্ণ
করোনায় শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় সিলেটবাসীর সহায়তা চাইলেন সেনাকর্মকর্তা

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সৃষ্ট দুর্যোগময় মুহূর্তে শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় সিলেটবাসীর সহায়তা চেয়েছেন ৩৪ বীর'র অধিনায়ক মেজর মো. কামরুল হাসান। তিনি কোনোভাবেই কোনো প্রকার গুজব, গুঞ্জণে কান না দিতে সবার প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, সিলেটের শান্তি -শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য সেনা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে।


সিলেটের দায়িত্বরত এ সেনা কর্মকর্তা বলেন,সেনা বাহিনীর একজন সদস্য হিসেবে, দেশ মাতৃকার দুর্যোগপূর্ণ সময়ে আজীবন আমরা পাশে থাকবো। করোনা ভাইরাসকে (COVID-19) একটি যুদ্ধ হিসেবে গ্রহন করেছে সেনা বাহিনী। তাই কি পেলাম, কি পেলাম না এবং কোন কিছুর লাভের আশায় সেনা বাহিনীর সদস্য হিসেবে আমরা কাজ করিনা। দেশটা আমাদের, তাই কাজটা আমদেরকেই করতে হবে। বাড়ি বা হাসপাতাল যেখানেই কোয়ারেন্টাইন হোক- করোনাভাইরাস যেহেতু আক্রান্ত এলাকায় ভয়াবহ গতিতে সংক্রমণ ঘটায়- সে কারণে যে সব এলাকায় কোয়ারেন্টাইন বা আইসোলেশনে করোনা সন্দেহে মানুষজনকে রাখা হচ্ছে, সেসব এলাকায় ছড়িয়ে পড়ছে আতঙ্ক। একটা ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে।এমন অবস্থায় বেড়েছে উদ্বেগ, বেড়েছে পরিবারগুলোর দুশ্চিন্তা। 

কিন্তু এই দুশ্চিন্তা কোনও সমাধান নয়।জনসাধারণকে আত্মবিশ্বাসী ও সচেতন করে তুলতে হবে। কারণ এই ভাইরাসের মোকাবেলায় প্রয়োজন দৃঢ় আত্মবিশ্বাস।এ প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে নিজেকে ও নিজের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে ভাইরাসটি সম্পর্কে সম্যক ধারণা থাকা আবশ্যক। 

সিলেটের শান্তি রক্ষায় সিলেট বাসীর সহায়তা চেয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা কোনোভাবেই কোনো প্রকার গুজবে কান দেবেন না, গুজবকে প্রশ্রয় দেবেন না।সিলেটের শান্তি -শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য সেনা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। আপনারা আমাদেরকে সহায়তা করুন। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, করোনা জনিত উপসর্গ দেখা দিলে আতঙ্কিত না হয়ে সরকারের দেয়া হটলাইন নাম্বার গুলো ব্যবহার করুন। প্রত্যেকে যার যার ঘরে থাকুন। ধৈর্য, সহনশীলতা ও সৎ সাহসের পরিচয় দিয়ে আমাদের সবার দায়িত্ব এই মহামারিতে সঠিক ভূমিকা পালন করা।

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য