শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেট ৪ ও ৫ আসন জমিয়তকে ছাড় না দিলে ২৩ দল ক্ষতিগ্রস্থ হবে



আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৩ দলীয় জোটের অন্যতম শরীক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেটের নেতারা বলেছেন, সিলেট ৪ আসনে মাওলানা আতাউর রহমান ও সিলেট ৫ আসনে মাওলানা উবায়দুল­াহ ফারুককে ২৩ দলীয় জোট তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে প্রার্থী ঘোষণা না করা হলে জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ক্ষতিগ্রস্থ হবে। তারা বলেন, এই দুটি আসনে প্রায় ৪ শতাধিক ক্বওমী মাদ্রাসা রয়েছে। ২টি আসনেই মানুষ ইসলাম প্রিয়। তারা আলেম ওলামাদের পছন্দ করে। অতীতে জাতীয় নির্বাচনগুলোতে সেখানকার মানুষ আলেম ওলামাদের ভোট দিয়ে জাতীয় সংসদে পাঠিয়েছেন। তাই সবদিক বিবেচনা করে সিলেট ৪ ও ৫ আসন ২৩ দলীয় জোটের অন্যতম শরীক দল হিসেবে জমিয়তকে ছাড় দিতে হবে। সিলেটে জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, জমিয়ত দীর্ঘদিন থেকে ২৩ দলীয় জোটে আছে। জোটের কাছ থেকে আমাদের ন্যায্য অধিকারটুকু পাইনি। এবার জোটের কাছ থেকে আমরা ভিক্ষা নিতে চাই না। আমরা ন্যায্য হিস্যা চাই। অনেকে আলেমরা ‘ক্বওমী জননী’ উপহার দিয়ে নৌকা নিয়ে নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন। কিন্তু জমিয়ত এখনও নীতি ও আদর্শের উপর অটল রয়েছে। সিলেটে জোটের প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ২৩ দলীয় জোট তথা ঐক্যফ্রন্ট ভুল সিদ্ধান্ত নিলে শুধু সিলেটে নয় সারা বিভাগে এর প্রভাব পড়বে। সিলেট জেলা জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী জানান, ইতোমধ্যে জমিয়ত মহাসচিব আল­ামা নুর হোসাইন ক্বাসেমী বরাবরে জেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা শায়খ জিয়া উদ্দিনের স্বাক্ষরিত একটি চিঠি হস্তান্তর করা হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, সিলেটের ৬টি আসনের মধ্যে সিলেট ৪ ও ৫ আসন জমিয়তকে ছাড় না দিলে সিলেটের ৬টিতে আমাদের দলের অস্তিত্ব রক্ষার্থে আমরা দলীয় প্রতীক খেজুর গাছ নিয়ে নির্বাচন করব।
এদিকে মাওলানা উবায়দুল­াহ ফারুকের সমর্থনে মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) দুপুরে জকিগঞ্জ উপজেলার ১নং বারহাল ইউনিয়নে জমিয়ত নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ইউনিয়ন জমিয়তের সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে ও ছাত্র জমিয়ত নেতা হাফিজ আবুল কাসিম নোমানের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তের কেন্দ্রীয় সদস্য ও কানাইঘাট উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি এবাদুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন ১২ হাল ইউনিয়ন জমিয়তের সহ সভাপতি মাওলানা মখলিছুর রহমান, মাওলানা আব্দুর রশিদ, যুব জমিয়ত নেতা মাওলানা ইমরান হোসাইন চৌধুরী, আলিম উদ্দিন, আব্দুর রহিম, আব্দুল ওয়াজিদ, এমদাদুল হক শাহিন, আলী হোসাইন, উসামা মনসুর, এবাদুর রহমান, এমদাদুল ইসলাম প্রমুখ।

UA-126402543-3