বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে উন্নয়ন মেলার শেষ দিনে বিভিন্ন প্রকল্পে: নগদ টাকা ও ভূমিহীনের মাঝে দলিল হস্তান্তর



আসহাবুর ইসলাম শাওন, কমলগঞ্জ থেকে:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে তিন দিনের উন্নয়ন মেলার শেষ দিনে বিভিন্ন প্রকল্পে গত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩০০ পরিবারের মাঝে ১৫ লাখ ও গ্রামীণ কমংসংস্থান প্রকল্পের আওতায় ৯০ জন নারীকে ৭৬ লাখ টাকা মিলিয়ে মোট ৯১ লাখ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের আতওায় ৭৮ জনের মাঝে ৮ লক্ষ ২০ হাজার ও সোনালী ব্যাংকের উদ্যোগে দুইজন ব্যবসায়ীকে ১৪ লক্ষ মিলিয়ে মোট ২২ লাখ ২০ হাজার টাকার ঋণ প্রদান করা হয়।

শনিবার (৬অক্টোবর) বিকালে কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে উন্নয়ন মেলার সমাপনি দিনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এই আর্থিক অনুদান, ঋণ প্রদান ও ভূমিহীনের মাঝে দলিল হস্তান্তর করেন মৌলভীবাজার-৪ আসনের সাংসদ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপি।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদল হকের সভাপতিত্বে আর্থিক অনুদান ও ঋণ প্রদান ও দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপি।

অনুষ্টানে শিক্ষক মোশাহিদ আলীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান, উপজেলা আওয়ামলীগ সভাপতি এম মোসাদ্দেক আহমদ মানিক,সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক হারুন অর রশীদ ভ’ইয়া, কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান মুন্সিবাজার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মতলিব তরফদার, রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল প্রমুখ ।

কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা হিসাবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিতরণ প্রকল্পের আওতায় গত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩০০ পরিবারের মাঝে নগদ ৫ হাজার টাকা করে মোট ১৫ লাখ টাকার অনুদান প্রদান করা হয়। উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলীর কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গ্রামীন নারীদের কর্ম সংস্থান প্রকল্পের আওতায় ৯০ জন নারীকে মোট ৭৬ লাখ টাকার অনুদান প্রদান করা হয়।
একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের আওতায় ৭৮ জন সদস্যের মাঝে ৮ লাখ ২০ হাজার টাকার ঋণ প্রদান করা হয়। একই সাথে সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখার মাধ্যমে দুটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে যথাক্রমে ১০ লাখ ও ৪ টাকা কওে মোট ১৪ লাখ টাকার ঋণ প্রদান করা হয়। তাছাড়া ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের দেওড়াছড়ার ভূমিহীন আক্কাছ আলী(৬০)-র হাতে ১৫ শতাংশ জমির পর্চাও হস্তান্তরের মাধ্যমে তিন দিনের উন্নয়ন মেলার সমাপ্তি ঘটে।

UA-126402543-3