বুধবার, ২২ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর

ভালোবাসার সংসার তেতো করে দিলযৌতুক



মোঃ সোহাগ আহমদ, জৈন্তাপুর প্রতিনিধি:: সিলেট সিলেটের গোয়াইনঘাট থানাধীন এলাকা গোরা গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের মেয়ে রেশমা আক্তার (২২) কে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর পরিবারের উপর। একই গ্রামের আকবর আলীর পূত্র আমিনুল হক এর সাথে আনুমানিক ৯ মাস আগে উভয় পরিবারের সম্মতিতে তাদের বিয়ে হয়৷

মেয়ের পরিবারের অভিযোগ, বিয়ের পর মাস খানেক সময় ভালো কাটলেও পরবর্তীতে শুরু হয় রেশমার সংসার জীবনে অশান্তি। এই অশান্তির মূল কারণ যৌতুক। রেশমার স্বামী তাকে প্রতিনিয়ত বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার জন্য বলতো। রেশমা টাকা আনতে অক্ষম হলেই শুরু হত অমানবিক অত্যাচার।

অবশেষে মেয়ের অশান্তি সহ্য করতে না পেরে রেশমার স্বামী হারা মা তারা মেয়ে জামাইকে অনেক কষ্ট করে ৫০ হাজার টাকা দিতে বাধ্য হয়। কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই রেশমার উপর পুনরায় নির্যাতন শুরু হয়। তার শশুর বাড়ির লোকেরা আরও মোটা অংকের টাকা দাবি করে,যা রেশমার মায়ের পক্ষে দেওয়া কোনভাবেই সম্ভব না।কিন্তু রেশমার স্বামীর করা হুশিয়ারী, টাকা এনে দিতে না পারলে সংসার হবে না।

তবুও কাজ না হওয়ায় গত সোমবার (৬ আগষ্ট) সকাল আনুমানিক ৯ ঘটিকার দিকে রেশমার স্বামী আমিনুল হক তাকে বেধরম মারধর শুরু করে। তাকে মারতে মারতে জখম করে। সে চোখে আঘাত পেয়েছে।

একপর্যায়ে রেশমার চিৎকার শুনে কয়েকজন প্রতিবেশী ছুটে আসে। পরে তাকে উদ্ধার করে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেলে ভর্তি করে। বর্তমানে রেশমা ওই হাসপাতালের ৪ তলার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে।এবিষয়ে রেশমার পরিবারের পক্ষে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।