সোমবার, জুলাই ১৩, ২০ ২০
মৌলভীবাজার ডেস্ক
২৫ মে ২০ ২০
২:২৭ অপরাহ্ণ
কমলগঞ্জে পাগল কুকুরের কান্ড! কামড়ে আহত হলো ৭ জন

আসহাবুর ইসলাম শাওন, কমলগঞ্জ থেকে:  মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ভানুগাছ বাজারে রবিবার ঈদের আগেরদিন বাজারে আসা মানুষ জনের উপর হঠাৎ করে একটি পাগলা কুকুর আক্রমণ করে। পাগল কুকুর টি রোববার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপজেলা থেকে শুরু করে ভানুগাছ বাজারের পৃথক পৃথক স্হানে ৭ জন নারী পুরুষকে কামড় দিয়ে আহত করে । এসময় বাজার করতে আসা লোকজনের মধ্যে আতংক দেখা দিলে লোকজন দিকবেদিক ছুটাছুটি শুরু করে।

কুকুরের কামড়ে আতঙ্কিত হওয়া সাধারণ মানুষরা কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

পাগল কুকুরের কামড়ে আহত কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়ন এর বালিগাঁও গ্রামের দুই সহোদর ফজলুল আলম সাজু বলেন, দুপুরে আমার ছোট ভাই মিনহাজুল ইসলাম সাচ্চুকে ভানুগাছ বাজারের ১০ নং রোডে পাগল কুকুরটি পায়ের পিছনে ঝাপটে ধরে আহত করে, বিকালে আমাকে পাগল কুকুরটি ভানুগাছ চৌমুহনী তে পিছন থেকে কামড় দিয়ে রক্তাক্ত করে। আমরা দু ভাই কুকুরের কামড়ের শিকার হয়ে ভানুগাছ বাজারের জনতা ফার্মেসী তে কুকুর কামড়ানো প্রতিষেধক ভ্যাকসিন নিয়েছি। শুনেছি এই কুকুরটি আমাদের মত আরো প্রায় সাত আট জন ব্যক্তিকে কামড় দিয়ে আহত করেছে।

এদিকে রোববার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত কুকুরের কামড়ে আহত ব্যক্তিরা কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

হাসপাতালের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া বলেন, কুকুরের কামড়ে আহত,৪ জন হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। তিনি আরো জানান, বিগত দুই বছর থেকে তাদের হাসপাতালে কুকুর কামড়ানো প্রতিষেধক ভ্যাকসিন সরবারহ নেই। মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের ইমার্জেন্সি থেকে ভ্যাকসিন সরবারহ করা হয় বলে তিনি জানান।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পাগল কুকুরটিকে মারতে না পাড়ায় এলাকার মধ্যে কুকুরের কামড়ের আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য