সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০ ২০
রাজনীতি ডেস্ক
১৯ মার্চ ২০ ২০
৪:৪৫ অপরাহ্ণ
সিলেট জেলা জাপার সম্মেলন প্রস্তুত কমিটি প্রত্যাখান, পাল্টা আহবায়ক কমিটি ঘোষণা

সিলেটে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রঘোষিত ১৩ সদস্যের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। রোববার দুপুরে সিলেট নগরীর একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির তৃণমূল নেতাকর্মীদের ব্যানারে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে ৯১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটিও ঘোষণা করেন নেতৃবৃন্দ।
জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জহির উদ্দিন পল্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেলা জাপা নেতা মো. বাশির আহমদ।
তিনি তার বক্তব্যে সিলেটে জাতীয় পার্টির অবদান তুলে ধরে বলেন, সিলেটে এ পার্টিকে ধ্বংসের জন্য অনুপ্রবেশকারীরা দায়ী। তারা দলে প্রবেশ করে অন্য দলের এ্যাজেন্ট হয়ে কাজ করে। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির নামধারী কিছু পাতি নেতা ব্যাংক লুট করে জেল থেকে বাঁচতে কেন্দ্রীয় অর্থলোভীদের মাধ্যমে দলের বর্তমান চেয়ারম্যানকে বিভ্রান্ত করে প্রেসিডিয়ামের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। পার্টির আহŸায়ক পদে দায়িত্বপালনে ব্যর্থতা স্বীকারের পর আবারও একই পদ পেয়েছেন। এর আগেও আড়াই/৩ বছর দায়িত্বপালন করলেও ১৩ উপজেলা ৫ পৌরসভা ও ৬ থানার একটিরও সম্মেলন করতে পারেন নি। সেই নেতৃত্বই আবার আহবায়কর পদে অধিষ্ঠিত হয়ে পার্টিকে কবর দেয়ার ব্যবস্থা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সংবাদ সম্মেলনে নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, জনৈক ব্যক্তিকে আহবায়ক করে সিলেটের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে গত ১৭ ফেব্রæয়ারি। সদস্য রাখা হয়েছে মাত্র ১৩ জন। ৪/৫ বছরেও যিনি কোন ইউনিটের সম্মেলন করতে পারেন নি তাকেই আবার কার স্বার্থে আহবায়ক করা হয়েছে- তৃণমূল নেতাকর্মীরা এর জবাব চায়। গত সংসদ নির্বাচনে ঐ আহবায়ক মাত্র ৪২০ ভোট পেয়েছে! অথচ তাকেই প্রেসিডিাম, অতিরিক্ত মহাসচিব ও সিলেট জেলা শাখার আহবায়কের পদ দিয়ে বারবার পুরস্কৃত করা হচ্ছে। ত্যাগী নেতাকর্মীরা আজ কোনঠাসা। স্থানীয় নির্বাচনে প্রার্থী খুঁজে পাওয়া যায়না। এজন্য তিনি ঐ ব্যক্তিকেই দায়ী করেন। তারা ১৭ ফেব্রæয়ারি কেন্দ্রঘোষিত বা অনুমোদিত ১৩ সদস্যের আহবায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান করে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান।
তিনি বলেন, অবিলম্বে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির একটি গ্রহণযোগ্য সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন না করলে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবো। কেন্দ্রঘোষিত আহবায়ক কমিটি দিয়ে ১৪ মার্চের সম্মেলন অবাস্তব। এই সম্মেলনে কোন তৃণমূল নেতাকর্মী উপস্থিত থাকতে পারেনা। পরে তারা ইশরাকুল হোসেন শামীমকে আহবায়ক ও আহসান হাবীব মঈনকে সদস্য সচিব করে ৯১ সদস্য বিশিষ্ট সিলেট জেলা তৃণমূল জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করেন। সংবাদ সম্মেলনে তৃণমূল পর্যায়ের জাপা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, ১৭ ফেব্রæয়ারি কেন্দ্রঘোষিত ১৩ সদস্যের যে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে, এতে আহবায়ক করা হয়েছে এটিইউ তাজ রহমান ও সদস্যসচিব করা হয়েছে ওসমান আলীকে।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নবগঠিত কমিটির আহবায়ক ইশরাকুল হোসেন শামীম, যুগ্ম আহবায়ক বাহার খন্দকার, মুজিবুর রহমান মুজিব, সুফি মাহমুদ, নাজমুল ইসলাম, হেলাল আহমদ লস্কর, সদস্য সচিব আহসান হাবীব মঈন, সদস্য নাহিদা আক্তার চৌধুরীসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য