বুধবার, মে ২৭, ২০ ২০
মৌলভীবাজার ডেস্ক
১৫ মার্চ ২০ ২০
৬:৫৩ অপরাহ্ণ
৬ অবৈধ ইট ভাটা গুড়িয়ে দেয়া হল!  ৬০ লক্ষ টাকা জরিমানা

নাজমুল ইসলাম,কুলাউড়া:: কুলাউড়াসহ মৌলভীবাজারের ৩ উপজেলায় ৬ টি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে তা গুড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর। এর মধ্যে তিন ইটভাটাকে ৬০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

১২ ফেব্রুয়ারী বুধবার দুপুরে পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ইসরাত জাহান পান্নার নেতৃত্বে কুলাউড়া,জুড়ী ও রাজনগর উপজেলায় এ সাড়াষি অভিযান  চালানো হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপরে জুড়ী উপজেলার জায়ফর নগর ইউনিয়নের ভূয়াই এলাকার এমকো ব্রিকস ও পাশ^বর্তী বাব ব্রিকসে অভিযান চালিয়ে অবৈধ চুল্লি এবং ইটভাটা গুড়িয়ে দেয়া হয়। এসময় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মরহুম আসুক মিয়ার মালিকানাধীন এমকো ব্রিকস ও বাবুল আহমদ বাবলুর বাব ব্রিকসকে ২০ লক্ষ করে উভয়কে ৪০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। এর আগে 

১১ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার পরিবেশ বান্ধব উপায়ে ইট তৈরি না করায়, নিয়ম না মেনে কাঠ পুড়ানো ও পরিবেশ বান্ধব চুলা না থাকায় পরিবেশ অধিদপ্তরের নেতৃত্বে কুলাউড়া উপজেলার ঢুলিপাড়া নামক স্থানে খান ব্রিকস,রাজনগর উপজেলার মুরালী গ্রামে কাজী খন্দকার ব্রিকস, একই ইউনিয়নের কর্ণিগ্রাম এলাকায় অবস্থিত এসকে ব্রিকস, মহলাল গ্রাামের এম. আর ব্রিকস  এ অভিযান চালিয়ে চুল্লিগুলো গুড়িয়ে দেয়া হয়। এরমধ্যে রাজনগর সদর ইউনিয়নের কর্ণিগ্রাম এলাকায় অবস্থিত এসকে ব্রিকসকে নিয়ম না মেনে কাঠ পুড়ানো ও পরিবেশ বান্ধব চুলা না থাকার অভিযোগে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। তাৎক্ষনিক ২ লাখ টাকা আদায় করে বাকী টাকা সময় বেঁধে পরিশোধের নির্দেশ দেওয়া হয়।

পরিবেশ সুরক্ষায় জেলায় মোট ১১টি অবৈধ কারখানায় এ অভিযান পর্যায়ক্রমে চালানো হবে হবে বলে জানায় পরিবেশ অধিদপ্তর।

পরিবেশ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলার সহকারী পরিচালক বদরুল হুদা বলেন,পরিবেশ অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ইসরাত জাহান পান্না স্যারের নেতৃত্বে কুলাউড়া,জুড়ী ও রাজনগরসহ ৬টি ইটভাটায় অভিযান চালানো হয়েছে। এদের মধ্যে জুড়ীতে এমকো ব্রিকস ও বাব ব্রিকসকে ২০ লক্ষ করে উভয়কে ৪০ লক্ষ ও রাজনগরের কর্ণিগ্রাম এলাকার এস.কে ব্রিকসকে ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলার পরিদর্শক মোঃ ফখর উদ্দিন চৌধুরী। অভিযানকালে আর্মড ফোর্স ব্যটালিয়ন,সিলেট এর সদস্যবৃন্দ আইন শৃংখলা রক্ষার দায়িত্বে ছিলেন।    
 

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য