সোমবার, জুলাই ১৩, ২০ ২০
মৌলভীবাজার ডেস্ক
১৭ মার্চ ২০ ২০
৩:২৯ অপরাহ্ণ
কমলগঞ্জে ২৬ সরকারি দপ্তরের ওয়েবসাইটে নেই আপডেট তথ্য

আসহাবুর ইসলাম শাওন ,কমলগঞ্জ থেকে:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সরকারি অফিসগুলোর ওয়েবসাইটে আপডেট তথ্য না থাকায় ডিজিটাল বাংলাদেশের ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত রয়েছে উপজেলার মানুষ। ওয়েবসাইটগুলোর সর্বশেষ তথ্য সংযোজন না হওয়ায় জনসাধারণকে পড়তে হচ্ছে বিভ্রান্তিতে। ফলে নাগরিকরা একদিকে যেমন সঠিক তথ্যের পরিবর্তে ভুল তথ্য পাচ্ছেন। অন্যদিকে পূর্ণতা পাচ্ছে না ডিজিটাল বাংলাদেশ। ওয়েবসাইটটি নিয়মিত আপডেট না হওয়ায় স্থানীয় জনসাধারণের পাশাপাশি গণমাধ্যমকর্মীরাও সঠিক তথ্য পেতে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।  কমলগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের সাথে যুক্ত ২৬টি সরকারি দপ্তরের ওয়েবসাইট ঘেটে দেখা যায়, ৩৩টি দপ্তরের লিংক থাকলেও অধিকাংশ লিংকেই কোনো তথ্য নেই। দীর্ঘদিন ধরে আপডেট করা হয়নি ওয়েবসাইটের দেওয়া তথ্য। ফলে বাস্তবতার সঙ্গে মিলছে না ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য। এমনকি কমলগঞ্জ তথ্য বাতায়নের ওয়েবসাইটে গিয়ে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আপডেট তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। পাওয়া যাচ্ছে দীর্ঘদিন আগে বদলি হওয়া ও চাকরি থেকে অবসরে যাওয়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নাম। কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসরাণ অফিসের ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যায়, পূর্বের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নিলুফা ইয়াসমিন মোনালিসার নাম ও মোবাইল নাম্বার রয়েছে। বর্তমান কৃষি অফিসার আশরাফুল আলমের নাম নেই। শুধু এই একটি নাম ছাড়া ওয়েসাইটে কৃষকদের জানার কোনো তথ্য নেই। একই অবস্থা উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের। সেখানে ৪ মাস আগে বদলি হওয়া ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা আসাদ উল¬্যার নাম শোভা পাচ্ছে। নোটিশে বোর্ডে নেই কোনো নোটিশ। ওয়েবসাইটটি শেষ হালনাগাদের তারিখ রয়েছে ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯। ফায়ার সার্ভিস ও ডিফেন্স অফিসের সাব অফিসার আশরাফ উদ্দীন অনেক আগে বদলি হলেও তার নাম মোবাইল ও ছবি সেখানে রয়েছে। বর্তমান আব্দুল কাদেরের নাম নেই। এছাড়া আরো চারজন ফায়ারম্যান বদলি হয়ে অন্যত্রে চাকরি করলেও তাদের নাম-ছবি রয়েছে। উপজেলা আনসার ভিডিপি প্রশিক্ষক নাছিমা আক্তারের নাম ছাড়া আর কোনো কার্যক্রম ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া যায়নি। উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা নতুন যোগদান করলেও সেখানে তকদির হোসেনের নাম ও মোবাইল নাম্বার রয়েছে। আর কোনো তথ্য নেই। একই অবস্থা উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসের ওয়েবসাইটে। বর্তমান প্রাণী সম্পদ কর্মকতা ডা: হেদায়েদ উল¬্যার কোনো তথ্য সংযোজন নেই। কর্মচারীদের নামের তালিকা থাকলেও কর্মকর্তার নাম নেই। বর্তমানে সরকার উপজেলা পর্যায়ে জনসাধারণের জন্য তথ্য সহজীকরণের জন্য প্রতিটি উপজেলায় একটি তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করলেও কমলগঞ্জের তথ্য কেন্দ্রের ওয়েবসাইটে কোনো তথ্যই নেই। খালি দেখা যায়। উপজেলা হাসপাতালেও ওয়েবসাইটের একই দশা। সেখানে দুই মাস আগে বদলিকৃত টিএইচও ইয়াইয়াহ'র নাম ও মোবাইল নাম্বার রয়েছে। বর্তমান কর্মকতা মাহবুবুল আলম ভুইয়ার কোনো তথ্য নেই। এক বছর আগে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের অফিস সহায়ক আলফাজ উদ্দীন বদলি হলেও সেখানে তার ছবি ও নাম শোভা পাচ্ছে। একই অবস্থা সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর উপজেলা নির্বাচন অফিসে। উপজেলা নির্বাচন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম দায়িত্ব পালন করলেও সেখানে দুই বছর আগে বদলিকৃত ফরহাদ হোসেনের ছবি ও নাম শোভা পাচ্ছে। এভাবেই সমাজসেবা, যুব উন্নয়ন, সমবায়, বিআরডি, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসসহ ২৬টি দপ্তরের বর্তমানে কোথায়, কি উন্নয়ন করা হচ্ছে এর কোনো তথ্যই নেই। নেই উপজেলায় কি কি চলমান প্রকল্প রয়েছে কিংবা এর ব্যয়ের হিসাব। অপরদিকে ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েবসাইটে ‘প্রকল্পসমূহ’ ক্যাটাগরিতে প্রকল্প সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। অভিযোগ রয়েছে,  প্রকল্প সংক্রান্ত তথ্য ওয়েবসাইটে প্রকাশ করলে গোপন তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে বলে প্রকাশ করা হচ্ছে না। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বর্তমান সরকারের তথ্য বাতায়ন কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে আইসিটি বিভাগের এটুআই প্রকল্প হতে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অংশগ্রহণে একাধিকবার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু এরপরও এসব অফিসের সাইটগুলো আপডেট করা হচ্ছে না। বিভিন্ন সমস্যায় স্থানীয় কর্মকর্তাদের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। ফলে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে এবং সহজেই তথ্য প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কমলগঞ্জবাসী। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা তথ্য ও প্রযুক্তি অফিসের সহকারী প্রোগামার মো: রকিবুল হক বলেন, সবকটি সরকারি দপ্তরের ওয়েবসাইটগুলো হালনাগাদ করার জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে এবং একাধিকার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্টদের। তারপরও কেন ওয়েবসাইটগুলো আপডেট হচ্ছে না তা বলতে পারচ্ছেন না। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক বলেন, উপজেলা প্রশাসনিক মূল ওয়েবসাইট সব সময় আপডেট আছে। তবে অন্যান্য স্বস্ব নিজেরাই করার দায়িত্ব। এরপরও কেন আপডেট নেই তা জরুরীভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন ।
 

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য