রবিবার, জুলাই ১২, ২০ ২০
মৌলভীবাজার ডেস্ক
১৯ মার্চ ২০ ২০
৯:০ ৫ পূর্বাহ্ণ
কমলগঞ্জে কিশোরী ধর্ষনের অভিযোগে ১ জন আটক

আসহাবুর ইসলাম শাওন ,কমলগঞ্জ:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষন করার অভিযোগে উঠেছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা ও আতœীয়-স্বজনরা সালাম মিয়া (৩৬) নামে এক জনকে শনিবার বিকালে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটক সালাম উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের উত্তরভাগ গ্রামের মৃত রইছ মিয়ার ছেলে। ধর্ষিতা ওই কিশোরী বর্তমানে মৌলভীবাজার ২৫০ শষ্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা কিশোরীর মা ছফিনা বেগম বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। ধর্ষিতা কিশোরীর মা ছফিনা বেগম জানান, গত শুক্রবার (৭ফেব্রুয়ারি) তার ছোট মেয়ে ও ছেলে জাফর মিয়াকে বাড়ীতে রেখে বড় মেয়ের স্বামীর বাড়িতে যান। শনিবার (৮ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে আমার মেয়ে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাহিরে বের হলে সালাম আমার মেয়েকে তার মুখ ধরে জোর পূর্বক সিএনজি অটোরিক্সায় করে উত্তরভাগ গ্রামের প্রবাসী কফিল মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় নিয়ে যায়। পরবর্তীতে আমার মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে সালাম জোর পূর্বক একাধিকবার ধর্ষন করে। তিনি জানান, শনিবার সকালে তিনি বাড়িতে এসে মেয়েকে না পেয়ে আত্মীয়-স্বজনদের অবগত করে খোঁজাখুজি করি। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ওই দিন বিকাল ৪ টার উত্তরভাগ গ্রামের প্রবাসী কফিল মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসার দরজার তালা ভেঙ্গে তার মেয়ের হাত ও মুখ কাপড় দিয়ে বাধাঁ অবস্থায় উদ্ধার করেন। তখন ওই ঘরে থাকা সালাম পালানোর চেষ্টা করলে ধর্ষিতার মা ও আতিœয়-স্বজনরা তাকে আটক করে কমলগঞ্জ থানায় পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। এদিকে ধর্ষিতা কিশোরীকে উদ্ভার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শষ্যা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান ধর্ষনের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষিতা কিশোরীর মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। আটক সালামকে রবিবার দুপুরে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর

পুরানো খবর দেখার জন্য