বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

৪৬৯

স্মৃতি কাদায়: এফ কে জুনেদ আহমদ

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২২ ১০ ০০  

আধ্যতিক রাজধানী সিলেটের মুকুট বিহীন সম্রাট হযরত শাহজালাল,শাহপরান (র.) সহ ৩৬০ আউলিয়ার স্মৃতি বিজড়িত সিলেটের কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার দলইরগাও গ্রামে জন্ম গ্রহন করেছিলেন এক জীবন্ত কিংবদন্তী।
তিনি ছাত্র জীবন থেকে শুরু করে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত  কুরআন হাদিসের সুমহান আলো সর্বত্র ছড়িয়ে দিয়ে অনুকরনীয় হয়ে আছেন অগণিত জনতার মাঝে। এ মহান ব্যক্তি হলেন সিলেট জেলার কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার মানজারুল ইসলাম দারুল হাদীস দলইরগাঁও টাইটেল মাদরাসার মুহতামিম হযরত মাওলানা আব্দুল মান্নান(র.)।

গত ২৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার দ্বীনী দরসগাহের মুহতামিমের দায়িত্বরত অবস্থায় মহান আল্লাহর ডাকে সাড়া দিয়ে দুনিয়া ত্যাগ করেন এ মহান আল্লাহর বিদ্বান। আমার এই অল্প বয়সে উনার শিক্ষকতা, পারিবারিক, ও সামাজিক জীবন সহ প্রতিটি ক্ষেত্রে কাছ থেকে হুজুরকে যতটুকু দেখার সুযোগ হয়েছে, সেগুলোকে সামনে রেখে আমার ক্ষুদ্র জ্ঞান দ্বারা বলতে পারি।তিনি ছিলেন, সুন্নতে নববীর পূর্ণ অনুসারী।উনার সম্পর্কে লিখার আমি অধম রাখিনা।

তবুও অবুজের কিছু কথা!
হে পরম শ্রদ্ধাভাজন অাপনাকে হারিয়ে ফেলেছি একথা ভেবে অন্তরে গভীর বেদনা অনুভব করি। অাপনাকে একজন অাদর্শ শিক্ষাগুরু হিসেবে পেয়েছিলেন যারা সত্যিই ভাগ্যবান তারা, অাপনার থেকে পাওয়া শিক্ষার মধ্যে তারা যে অক্লান্তিক প্রেরণা ও শিক্ষা অর্জন করার সন্ধান পেয়েছেন তা তাদের অনাগত কালের জন্য ঋণ স্বরুপ থাকবে।

২৫ জানুয়ারি যখন হঠাৎ খবর পেলাম দ্বীনের খাদিম অার নেই চলে গেছেন ওপারে।তখন অামার মনে হল কোম্পানীগঞ্জ হারালো তার এক শ্রেষ্ঠ সন্তানকে।যিনি অার কখনো ও ফিরে অাসবেন না।
টাইটেল মাদরাসার মুহতামিম থাকলেও সকল মতের মানুষের সাথে ছিল তাঁর সুসম্পর্ক এবং ছিলে সমাদ্রিত, প্রমাণ হল তার জানাজা। উনার ইন্তেকালের খবর শোনে দলমত নির্বিশেষে সবাই অাসছিলেন প্রিয় মানুষকে এক নজর দেখতে শেষ বিদায় জানাতে।অালেম- উলামা, ছাত্র, শিক্ষক, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক সহ হাজার হাজার মানুষের ঢল নেমেছিল দলইরগাঁও গ্রামে। অার সেই উপস্থিতির মাধ্যমে উত্তর সিলেটের জন্য সব চাইতে বড় জানাজা হয়েছিল এটা। নিশ্চয় এটা তাঁর কর্মের ফল।

কবি যথার্থই বলেছিলেন..
             এমন জীবন তুমি করিবে গঠন
             মরিলে হাসিবে তুমি কাদিবে ভূবন

নিশ্চয় তিনি এমন জীবন গঠন করেছিলেন অামাদেরকে/পুর উত্তর সিলেটবাসীকে কাদিয়ে তিনি হেসে হেসে চলে গেলেন মাওলার দরবারে। তবে তিনি তাঁর কর্ম গুনে হাজার বছর বেঁচে থাকবেন অসংখ্য মানুষের হৃদয় বন্দরে।

পরিশেষেঃ অশান্ত মনকে শান্তনা দিচ্ছি যে, মাবুদের বিধান অনুযায়ী সবাইকে এই পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে যেতে হবে একদিন।
একমাত্র স্বীয় মহিমা ও উজ্জ্বল কর্মই মানুষের মাঝে জীবন্ত রাখে। অাল্লাহ তায়ালার দরবারে তার মাগফিরাত কামনা করছি।দয়াময় যেন এ মনীষীকে জান্নাতুল ফেরদাউসের আলা মাকাম দান করেন, আমিন।

শিক্ষার্থী:
হযরত শাহজালাল  দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসা
সোবহানীঘাট, সিলেট

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর