আ.লীগের দখলে নগরীর বিলবোর্ড


এ টি এম তুরাব:: | ০৬:৪০ অপরাহ্ন, নভেম্বর ৩০, ২০১৯

IMG



 দীর্ঘ দিন পর ৫ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে ঘিরে যেন বিলবোর্ড দখলের হিড়িক পড়েছে। বিভিন্ন কোম্পানির বিলবোর্ড দখল করে সাঁটা হচ্ছে নেতাদের ছবি সংবলিত ব্যানার। এছাড়া নগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট, স্থাপনা এবং সম্মেলনস্থল সরকারী আলিয়া মাদ্রাসা মাঠও কার্যত ঢেকে ফেলা হয়েছে ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে। পাড়া-মহল্লাতে শোভা পাচ্ছে সরকার দলীয় নেতাদের ছবি সংবলিত ব্যানার ও ফেস্টুন। প্রচারণায় পিছিয়ে নেই জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনগুলো। তাঁরা নিজ নিজ বলয়ের নেতাদের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্মেলনের তারিখ ঘোষনার পর থেকে নেতৃত্ব প্রত্যাশীরা চালাচ্ছেন ব্যাপক প্রচারণা। নেতাকর্মীদের মধ্যে এখন শুধু একটি প্রশ্ন কারা আসছেন সিলেট আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে। পুরনো না নতুন নেতৃত্ব আসছে এমন প্রশ্নের ঘুরপাক খাচ্ছে।
বিশেষ করে দীর্ঘদিন পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়াতে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ ও উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তৎপর হয়ে ওঠেছেন পদপ্রত্যাশী নেতারা। শীর্ষ দুই পদে পদপ্রত্যাশী নেতাদের সমর্থনে নগরজুড়ে বিলবোর্ড-ফেস্টুন লাগিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন তাদের সমর্থকরা। অভিযোগ উঠেছে, অনুমতি ছাড়াই বাণিজ্যিক বিলবোর্ডগুলো দখল করে নিচ্ছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। 
দীর্ঘ আট বছর পর আগামী ৫ ডিসেম্বর সিলেট সরকারী আলিয়া মাদ্রাসার মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে মহানগরীর ২৭টি ওয়ার্ডে কমিটি গঠন হয়েছে এবং জেলার দু’একটি উপজেলা পরে প্রায় সবকটিতে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কাউন্সিলর নির্বাচনের প্রক্রিয়াও প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন চলছে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে মঞ্চ তৈরীসহ সম্মেলনের সব প্রস্তুতি।  
সরেজমিনে দেখা গেছে, নগরের বিভিন্ন স্থাপনা দখল করে লাগানো হয়েছে পদ প্রত্যাশীদের ব্যানার-ফেস্টুন। বিজ্ঞাপন থাকা বড় বড় বিলবোর্ডের ওপরই ঝোলানো হয়েছে ব্যানার। নগরীর প্রধান ব্যস্ততম এলাকা বন্দরবাজার, জিন্দাবাজার, চৌহাট্টা, রিকাবীবাজার এবং আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের আশপাশে দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের ছবি সম্বলিত বিশাল আকারের শতশত ডিজিটাল ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড শোভা পাচ্ছে।
এছাড়াও লামাবাজার, জিতু মিয়ার পয়েন্ট, তালতলা-সুরমা মার্কেট পয়েন্ট, কোর্ট পয়েন্ট, জিন্দাবাজার পয়েন্ট আম্বরখানা, সুবিদবাজার, মদিনা মার্কেট, পাঠানটুলা পয়েন্ট, টিলাগড়, শিবগঞ্জ, সুবহানীঘাট, নয়াসড়ক, উপশহর পয়েন্টসহ নগরীর অধিকাংশ জায়গায় দেখা গেছে বিশাল আকারের ব্যানার আর ফেস্টুন। 
এ ব্যাপারে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান বলেন, পদপ্রত্যাশীদের কর্মী সমর্থকরা নিজ নিজ উদ্যোগে বিলবোর্ডগুলোতে ব্যানার লাগিয়েছেন। তবে লাগানোর আগে ওই সব বিলবোর্ড মালিকের অনুমতি নেওয়া হয়েছে কি না জানা নেই। 




সম্পর্কিত খবর -----------------------------






লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন




পুরানো খবর দেখুন