উপশহরে যাত্রা শুরু করলো শিশুদের ইনডোর প্লে গ্রাউন্ড ‘কিডজভিলা’


ডেস্ক নিউজ:: | ০৭:২৬ অপরাহ্ন, জানুয়ারী ০১, ২০২০

IMG



শিশুদেরকে মোবাইল ফোন, অ্যান্ড্রয়েড ফোন, ল্যাপটপ, ভিডিও গেমস এবং অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস থেকে দূরে রাখার প্রত্যয় জানিয়ে সিলেটে যাত্রা শুরু করেছে ইনডোর প্লে গ্রাউন্ড ‘কিডজভিলা’। নগরের শাহজালাল উপশহরের ই-ব্লকের এক নম্বর রোডে ফেডালেল গ্রীন টাওয়ারে মঙ্গলবার বিকেল তিনটায় আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিলেটের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধন উপলক্ষে সিলেটের সুধীনজনদের ফুলেল শুভেচ্ছার মাধ্যমে স্বাগত জানায় কিডজভিলা পরিবার। পরে একে একে অতিথিবৃন্দ কিডজভিলা’র বিভিন্ন রাইড ঘুরে ঘুরে দেখেন। 
কিডজভিলা’র উদ্বোধনকালে বক্তারা বলেন, ইদানীং শিশুরা ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এটা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতির কারণ। পর্যাপ্ত খেলার জায়গা না থাকায় শিশুরা ডিভাইস নির্ভর হয়ে যাচ্ছে। এসবেই খেলাধূলার চাহিদা পূরণ করছে। এমন অবস্থা থেকে উত্তরণ প্রয়োজন। শিশুদেরকে এই অবস্থা থেকে বের করে নিয়ে আসতে কিডজভিলা’র মতো প্রতিষ্ঠানগুলো অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারে। সরকার ও সিটি কর্পোরেশনের উচিত এসব প্রতিষ্ঠানকে প্রণোদনা প্রদান করা। তাদের কাজে সহযোগিতা করা। কেননা এসব প্রতিষ্ঠান শুধু ব্যবসা নয় সামাজিক দায়বদ্ধতার দাবিটুকুও পূরণ করছে। 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম নাদেল, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, দৈনিক একাত্তরের কথা’র প্রকাশক নজরুল ইসলাম বাবুল, বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-পরিচালক আশরাফ সিদ্দিকী, সিলেট চেম্বার অব কর্মাসের সভাপতি আবু তাহের মো. শুয়েব, সিলেট মহানগর পুলিশের এডিসি ও গণমাধ্যম কর্মকর্তা জেদান আল মূসা, সিলেট স্টেশন ক্লাবের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এমাদউল্লাহ শহীদুল ইসলাম শাহীন, শিক্ষাবিদ রোটারিয়ান অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল (অব.) আতাউর রহমান পীর, সিলেট মহানগর পুলিশের ডেপুটি কমিশনার মো. কামরুল আমীন, জালালাবাদ গ্যাসের জি এম সোয়েব আহমদ মতিন, জৈন্তাপুর কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক সর্দার, এবি ব্যাংকের রিজিওনাল হেড মো. আব্দুছ ছালাম, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি ও দৈনিক একাত্তরের কথা’র নির্বাহী সম্পাদক মঈন উদ্দিন ও বার্তা সম্পাদক সাঈদ চৌধুরী টিপু, ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিম, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক রাজিয়া সুলতানা চৌধুরী, জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ, মহানগর যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নান, একাত্তরের কথা’র প্রধান প্রতিবেদক ও জেলা প্রেসক্লাবের তথ্য-প্রযুক্তি সম্পাদক মিসবাহ উদ্দীন আহমদ, প্রধান আলোকচিত্রী এস এম সুজন, আরটিভি’র সিলেট প্রতিনিধি হোসাইন আহমদ সুজাদ, জেলা পরিষদ সদস্য সুষমা সুলতানা রুহি, পাল্লাতল টি এস্টেটের ম্যানেজার এবিএম মাহবুবুর রহমান, মহানগর তাঁতীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আসাদুজ্জামান খাঁন জুয়েল, হাউজিং এস্টেট ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ওমর মাহবুব, রোটারিয়ান ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ বাংলাদেশ’র অ্যাসিস্টেন্ট গভর্ণর টিটু ওসমানী, সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী রাহাতুল ইসলাম চৌধুরীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ ও প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।




সম্পর্কিত খবর -----------------------------






লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন




পুরানো খবর দেখুন