সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

গোলাপগঞ্জে এমসি কলেজের এক শিক্ষার্থীকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা



গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি:: গোলাপগঞ্জে সৌমিক শাহরিয়ার (২২) নামে সিলেট এমসি কলেজের এক শিক্ষার্থীকে রাতের আধারে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ওই শিক্ষার্থী সিলেট এমসি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ও গোলাপগঞ্জ উপজেলার সদর ইউপির চৌঘরী গ্রামের মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে। বর্তমানে সিলেট ওমেকে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

আহতের বড় ভাই শাওন আহমদ জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টায় গোলাপগঞ্জ বাজার থেকে সিএনজিতে করে বাড়ীর সামনে নামে। নামা মাত্র অৎ পেতে থাকা প্রাইভেট কারে করে আসা ৩জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র দিয়ে সৌমিককে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা চালায়। এসময় তার চিৎকার শুনে আমি বাড়ী থেকে বের হলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। ওই শিক্ষার্থীর বাড়ী উপজেলার সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের পাশেই। শাওন বলেন,তার জ্ঞান ফিরলে হয়’ত কোন হামলাকারীদের পরিচয় বলতে পারবে।

আহত সৌমিককে তাৎক্ষণিক উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তার অবস্থার অবনতি দেখে সিলেটে নিয়ে যাওয়ার পারামর্শ দিলে তাৎক্ষণিক তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সে ওই হাসপাতালের ৩য় তলার ৯নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অতিরিক্ত রক্তকরণের কারণে এখনও জ্ঞান ফিরেনি। তার শরিরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তাকে ধারলো অস্ত্র দিয়ে কূপানো হয়েছে। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলীর সাথে আলাপ করা হলে তিনি বলেন,আমরা এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি। পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে ওইদিন রাত প্রায় ১টায় দাঁড়িপাতন এলাকা থেকে সাদা রংয়ের একটি কার উদ্ধার করেছেন আমাদের এসআই মৃদুল কুমার মৌমিক। ওই গাড়ীতে ৪-৫টা লোক ছিল পুলিশ দেখে পালিয়ে যায়। আটককৃত প্রাইভেট কারের নাম্বার হচ্ছে (ঢাকা মেট্রো-ক ০৩-৮৯৯৫)।
আহতের বড় ভাই বলেন,ভাইয়ের চিকিৎসা কাজে ব্যস্ত থাকায় থানায় এখনও কোন অভিযোগ দেইনি। ভাই একটু সুস্থ হলেই আইনের আশ্রয় নেবো।