মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিব আলেম ও সৎ রাজনীতিবিদদের জন্য অনুকরণীয় আদর্শ —আল্লামা ক্বাসেমী



জামেয়া মাদানীয়া ইসলামিয়া কাজির বাজার সিলেটের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করে তার নিজ মাদ্রাসার শিক্ষক- ছাত্রদের নিয়ে শনিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে মোনাজাত করেছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নুর হোসাইন ক্বাসেমী।

মোনাজাত পূর্ব সংক্ষিপ্ত আলোচনায় মরহুমের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন ও অনুকরণীয় দ্বীনি খেদমত সহ গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে তিনি বলেন, ইল্মে হাদীস ও দ্বীনি শিক্ষার প্রচার প্রসারে আজীবন ব্রত থাকার পাশাপাশি, ইমান আক্বীদার সুরক্ষা ও ইসলাম বিদ্বেষী নাস্তিক্যবাদের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন বীর যুদ্ধা। সালমান রুশদী ও তসলিমা নাসরিনের ইসলাম বিদ্বেষী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন উলামায়ে কেরামের মধ্যে অন্যতম অগ্রসেনানীর ভূমিকায়। রাষ্ট্রীয়ভাবে খেলাফত প্রতিষ্ঠা ও সমাজের ন্যায় ইনসাফ প্রতিষ্ঠার আন্দোলন সংগ্রামে মরহুম প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান বহু খেদমত করে গেছেন। জীবনের শেষপ্রান্তে এসেও অসুস্থ্য শরীর নিয়ে তিনি ইমান আক্বীদার আন্দোলনে ও নানা অপসংস্কৃতি দেশবিরোধী তৎপরতার প্রতিবাদে সক্রিয় ছিলেন। রাজপথে মিটিং মিছিলে তিনি উপস্থিত থাকতেন। তার বর্ণাঢ্য কর্মজীবন এই দেশের আলেম সমাজ ও সৎ রাজনীতিবিদদের জন্য এক অনুকরণীয় আদর্শ হয়ে থাকবে।

পরে জমিয়ত মহাসচিব মরহুমের প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান অগণিত ছাত্র, ভক্ত, মুরিদ, শুভানুধ্যায়ী ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সবরে জামিলের জন্য দোয়া করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান, জেলার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম. সাইফুর রহমান, মহানগর জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ছলিম ক্বাসেমী, জেলার প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, মাওলানা শফিউল আলম, জেলা যুব জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ আলী, মহানগর সভাপতি মাওলানা কবির আহমদ, মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মোহাম্মদ লুৎফুর রহমান, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা হাফিজ ফুযায়েল আহমদ, ছাত্রনেতা আব্দুর রহমান নাদিম প্রমুখ।