সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেটে সরকারের উদ্যোগে ঘর পাচ্ছে ৫৯২ পরিবার



জাবেদ এমরান:: সিলেটে ৫৯২ দরিদ্র ও ভূমিহীন পরিবারকে ঘর বানিয়ে দেবে সরকার। প্রতি ঘর নির্মাণের ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লক্ষ টাকা। এরই মধ্যে ঘর পাবার যোগ্য পরিবার নির্বাচন করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে টাকা পাওয়ার সাথে সাথে কাজ শুরু হবে। সঠিক ব্যক্তিরা যাতে ঘর পায় সেদিকে দৃষ্টি রাখতে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সিলেটে নবাগত জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে সিলেটে কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মতবিনিময়কালে জেলা প্রশাসক এসব তথ্য জানান।

নতুন ডিসি বলেন, সিলেটের ফুটপাত দখল করা হকারতের উচ্ছেদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঢাকা, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়াসহ ১৫ বছরের চাকরির অভিজ্ঞা কাজে লাগিয়ে সিলেটের উন্নয়নে কাজ করার আশা ব্যাক্ত করেন। কাজের মধ্যে ভুল হবে এটা স্বাভাবিক, কিন্তু ভুল করা যাবেনা। প্রকাশ্যে জনসম্মুখে বা পাবলিক প্লেসে যারা ধুমপান করেন মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান দিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিলেটের ১৯১তম জেলা প্রশাসক আরো বলেন, যারা হলুদ সাংবাদিকতায় জড়িত তারা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আটকা পড়বে। প্রকৃত সাংবাদিকরা হয়রানি হবেন এমনটি ভাবার কোন কারণ নেই।সিলেটের যেকোনো ভালো কাজে ও উন্নয়নে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখবো।সাংবাদিকরা যেকোনো সময় শুধু তথ্য জানতে নয় তাকে জানাতেও যোগাযোগ জন্য বলেন নবাগত এই জেলা প্রশাসক। সিলেটে চাকরীকালিন যতোদিন থাকবেন সাংবাদিক মহলের সার্বিক সহযোগীতা কামনা করেন।
সাংবাদিকদের প্রতি তাঁর সুদৃষ্টি থাকবে বলেও তিনি জানান।

মতবিনিময়কালে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে ছালিক রুমাইয়া, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তাপস রায় পুরকায়স্থ, ইমজার সভাপতি আশরাফুল কবিরসহ জেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকেরা উপস্থিত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে সিলেটের নতুন জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্টেট নিয়োগ করা হয়। জেলা প্রশাসক নুমেরি জামানকে বদলি করে নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এম কাজী এমদাদুল ইসলামকে। এবছরের মার্চে সিলেটে জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন নুমেরি জামান। বর্তমানে তার স্থলাভিষিক্ত হলেন এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।