বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন ও মানববন্ধন পালিত



সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট ক্রমাগত ভাবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর চালানো হচ্ছে নির্যাতন-নিপীড়ন। প্রতিনিয়ত সাধারণ ছাত্রদের ক্লাস করা থেকে শুরু করে এক অতিরঞ্জিত কষ্টের মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করতে হচ্ছে। ক্ষমতাসীন ছাত্রলীগের দখলে রয়েছে ইন্সটিটিউট’র ক্যাম্পাস এমনকি কর্তৃপক্ষও।

তাদের অপকর্মের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেই অধ্যক্ষের। তারই পরিপ্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার আনুমানিক সকাল ১১ টা ৩০ ঘটিকার সময় কয়েকজন সাধারণ ছাত্রদের মারধর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। যাদের দখলে রয়েছে সুরমা ছাত্রবাসও। শুধু একদিন নয় ছোট ছোট কারণ নিয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের মারধর করে। ফ্যানের সুইচ দেয়া থেকে শুরু করে, ইন্সটিটিউট’র পুকুরঘাটে শহীদ মিনারে বসা এমনকি ইন্সটিটিউট’র ইউনিফর্ম পরিধান করা নিয়ে।

কয়েকদিন পূর্বে ইলেকট্রিক্যাল বিভাগের ৫ম পর্বের ছাত্র রাজিব, সিভিল বিভাগের ৬ষ্ঠ পর্বের ছাত্র শফিকুর, কম্পিউটার বিভাগের ৫ম পর্বের ছাত্র ইকবাল, কম্পিউটার বিভাগের ৩য় পর্বের ছাত্র সুস্ময়, পলাশসহ প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক ছাত্র-ছাত্রীদের তারা হয়রানি এবং মারধর করে। গত বৃহস্পতিবারও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা কলেজের প্রশাসনিক ভবনের ৩য় তলায় ১ম পর্বের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করে।

শিক্ষার্থীরা জানান, আমরা দেখি সংখ্যালঘু ছাত্ররা মিলে কয়েকজন ছাত্রদের বিভিন্নভাবে মারধর করে। এমনকি চেয়ার দিয়েও আঘাত করা হয় তাদেরকে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঐ ছাত্ররা কলেজ ইউনিফর্ম নিয়ে না আসায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদেরকে বিভিন্নভাবে আঘাত করে। আহত শিক্ষার্থীরা জানান, ছাত্রলীগের কিছুসংখ্যক নেতাকর্মীরা ইন্সটিটিউট’র ইউনিফর্মের অজুহাত দেখিয়ে আমাদের উপর হামলা। প্রকৃতপক্ষে তারা আমাদের কাছে টাকা দাবি করে। আমরা দিতে মানা করলে তারা আমাদের উপর হামলা করে। আমাদের এমনভাবে পিটিয়েছে আমাদের হাত পা অচল হয়ে পড়েছে।

এর আগে ছাত্রলীগের হাতে লাঞ্চিত হওয়া কম্পিউটার ৫ম পর্বের ছাত্র ইকবাল জানান, আমাকেও বেশ কয়েকদিন আগে ছাত্রলীগের ২০ থেকে ২৫ জন নেতাকর্মীরা দা, জিআই পাইপ, হকিস্টিক, লাঠি দিয়ে হামলা করে আমাকে আঘাত করে। অধ্যক্ষ মহোদয়ের রুমের সামনে মাটিতে ফেলে আমাকে প্রচন্ড লাথি দিচ্ছিল। অধ্যক্ষ স্যার সেটি দেখে রুম বন্দ করে ভিতরে বসে নিরব ভূমিকা পালন করেন।
এসব কিছুর পরও কর্তপক্ষের এখন পর্যন্ত রয়েছে নিরব ভূমিকা।

তাই সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের সাধারণ শিক্ষার্থীরা শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) ক্লাস বর্জন করে সকাল ৭টা ৩০ মিনিট থেকে প্রায় ১০টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থী মো. নাঈমুল ইসলামে পরিচালনায় আয়োজিত কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী তুষার, নাজমুল, শরীফ, রিমন, তোফায়েল, রেদোয়ান, ইমন, সবুজ, ইউসুফ, সালাউদ্দীন, তানভীর, সায়মন, নাহিদ, আফজাল, পলাশ, সুস্ময়, শুভ, এহিয়া, খালেদ, নিউটন, আব্বাস, শফিকুর, উৎস প্রমুখ। মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা শান্ত সন্ত্রাস ও চাদাঁবাজী মুক্ত স্বাধীন ক্যাম্পাসের দাবী জানান।-বিজ্ঞপ্তি

UA-126402543-3