বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
চুনারুঘাটে বালি উত্তোলন নিয়ে গ্রামবাসীর প্রতিবাদ সমাবেশ  » «   জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট মামলায় রায়ের বিষয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর আদেশ  » «   মহিউদ্দিন শিরু’র ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত  » «   বিভিন্নক্ষেত্রে বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ এক রোল মডেল: শিক্ষামন্ত্রী  » «   চুনারুঘাটে পরিত্যক্ত টং দোখান থেকে পেট্রোল বোমা ও ককটেল উদ্ধার  » «   শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সিলেটের উন্নয়নে কাজ করতে চাই: ড. মোমেন  » «   জগন্নাথপুরে গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা  » «   জগন্নাথপুরের সুন্দর আলী পুত্রের কান্ড  » «   ভাষা সৈনিক আসাদ্দর আলীর জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   যান্ত্রীক ত্রুটিতে ৫ ঘন্টা ভোগান্তিতে পবিস কমলগঞ্জ জোনালের ৭৫ হাজার গ্রাহক  » «  

সিলেটীদের ভিসা পেতে আর অসুবিধা হবে না: ভারতীয় হাইকমিশনার



বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, ভারত ও বাংলাদেশ অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করেছে। কুলাউড়া শাহবাজপুর রেললাইন সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। এটি চালু হলে দুই দেশের ব্যবসা বাণিজ্য আরো বাড়বে।

এ বছরের শুরুতে সিলেটে সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনের অফিস খোলা হয়েছে। শিগগির হাই কমিশনের কর্মকর্তারা সিলেটে যোগদান করবেন। এটি চালু হলে সিলেটের মানুষের ভিসা পেতে আর অসুবিধা হবে না।

আজ শুক্রবার আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) মন্দিরে ভারতীয় হাই কমিশনের অর্থায়নে অভয়চরন ভয়েস ছাত্রাবাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।  হর্ষবর্ধন শ্রিংলা আরো বলেন, ‘সুসময় ও দুঃসময়ে সবসময় ভারত বাংলাদেশের পাশে আছে, পাশে থাকবে।

ভারত ও বাংলাদেশ দ্রুত উন্নয়নের দেশ হিসাবে নিজেদের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে দুই দেশের সম্পর্ক আরো মর্যাদায় পৌঁছেছে।

তিনি বলেন, কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কবি কাজী নজরুল ইসলামের সাহিত্যকর্ম আমাদের দুই দেশের সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করেছে। এতে বাংলা সাহিত্যকর্মও আরো সমৃদ্ধ হয়েছে। ভাল প্রতিবেশী দেশ হিসাবে দুই দেশ মর্যাদার আসনে ঠাঁই করে নিয়েছে। বাংলাদেশ সত্যিকার অর্থে সোনার বাংলা হিসাবে গড়ে উঠুক এই প্রত্যাশা করি।

ইসকন বাংলাদেশের সভাপতি সাবেক ডিআইজি এসআর বারৈ সভাপতিত্বে দেবামৃত নিতাই দাস ও ডা. সত্য সুন্দরী দেবী দাসীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন শাবির ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অরুন কুমার মালাকার, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত পুরকায়স্থ, ইসকন বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক চারু চন্দ্র দাস ব্রম্মচারী, ভারতের ইসকন মায়াপুর ইন্সটিটিউটের অধ্যাপক আনন্দ বর্ধন দাস ব্রম্মচারী, ইসকন বাংলাদেশের প্রথম সন্যাসী ভক্তিপ্রিয়ম গদাধর স্বামী মহারাজ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, যুগ্ম সম্পাদক বিজিত চৌধুরী, শাবির প্রক্টর হিমাদ্রী শেখর রায়, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস জার্নালিস্ট কমিশন সিলেট’র সভাপতি ফয়সল আহমদ বাবলু প্রমুখ।