রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মানুষ তাঁর সৎকাজ ও সদাচরণের মাধ্যমে অন্যের মনে স্থায়ী আসন করে নিতে পারে



সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের উল্টো রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নগরীর ইসকন মন্দির এলাকা থেকে বেলা ৩ টায় শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের উল্টো রথযাত্রা শোভাযাত্রা শুরু হয়। ১৩ জুলাই জগন্নাথদেবের রথ টানার মধ্য দিয়ে উৎসবের শুরু হয়েছে।

প্রতি বছর আষাঢ় মাসের শুক্লপক্ষের দ্বিতীয়া তিথিতে এ রথযাত্রা শুরু হয়। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, জগন্নাথদেব হলেন জগতের নাথ বা অধীশ্বর। জগত হচ্ছে বিশ্ব আর নাথ হচ্ছেন ঈশ্বর। তাই জগন্নাথ হচ্ছেন জগতের ঈশ্বর। তার অনুগ্রহ পেলে মানুষের মুক্তিলাভ হয়।

রবিবার উল্টো রথ টানের উদ্বোধন করেন সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুর হক চৌধুরী। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, মানুষ তাঁর সৎকাজ ও সদাচরণের মাধ্যমে অন্যের মনে স্থায়ী আসন করে নিতে পারে। সৎগুণ সম্পন্ন একজন সাধারণ ব্যক্তিও সমাজের মানুষের অতি প্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হতে পারেন। অপরপক্ষে ক্ষমতা, পদ-পদবী ও সম্পদের ঝলসানি থাকা সত্বেও, ব্যক্তিগত সৎগুণহীন ব্যক্তি ঘৃণার পাত্র হতে পারেন। সিলেট শহরের ইসকন মন্দির থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে জগন্নাথদেবের রথটি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় বিপুলসংখ্যক নারী-পুরুষ এটি টেনে শহরের ইসকন মন্দির প্রাঙ্গণে এসে সমাপ্তি ঘটে।
এদিকে রথযাত্রায় জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় বিপুল সংখ্যক আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন ছিল। ইসকন বাংলাদেশের সহ-সভাপতি ও ইসকন সিলেটের অধ্যক্ষ নবদ্বীপ দ্বিজ গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী সভাপতিত্বে ও ইসকন সিলেটের ইয়ুথ ফোরামের সাধারণ সম্পাদক দেবামৃত নিতাই দাসের পরিচালনায় উল্টো রথযাত্রা আনুষ্ঠানিকতার আগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, সকল ধর্মের মানুষ শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে চায়। এবার সিলেট সিটি কর্পোরেশন অবাধ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হবে। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। আমরা হানাহানি দেখতে চাই না, আমরা একটি সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ নগরী গড়ে তুলতে চাই। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত দাস পুরকায়স্থ, সিলেট ইমজার সাবেক সভাপতি আল আজাদ, ইসকন সিলেটের সাধারণ সম্পাদক ভাগবত করুনা দাস ব্রহ্মচারী, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক এড. সামসুল ইসলাম, ইসকন সিলেটের ইয়ুথ ফোরামের কো-অর্ডিনেটর দেবর্ষি শ্রীবাস ব্রহ্মচারী, প্রমুখ।