বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
অংশগ্রহণমূলক জাতীয় নির্বাচন চায় ইইউ  » «   ছাতকে পানিতে ডুবে দু’বোনের মৃত্যু  » «   বিমানবন্দরে গণসংবর্ধনা: যুক্তরাজ্যে সংক্ষিপ্ত সফর শেষে দেশে ফিরলেন মিসবাহ সিরাজ  » «   জৈন্তাপুরে তথ্য অধিকার বাস্তবায়ন ও পরীবিক্ষণ উপজেলা কমিটির সভা  » «   প্রচন্ড গরমে পুড়ছে জগন্নাথপুর  » «   সিলেটে কাউন্সিলর প্রার্থীর প্রচারণায় হামলা : আহত তিন  » «   নির্বাচন ঘিরে নিরাপত্তা: উদ্বেগ, উৎকন্ঠায় সিলেট নগরবাসী  » «   এইচএসসি পরীক্ষায় বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ’র ধারাবাহিক সাফল্য  » «   কামরানের নৌকার সমর্থনে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সভা  » «   আদালতপাড়া ও আখালীয়া এলাকায় টেবিল ঘড়ির সমর্থনে গণসংযোগ  » «  

প্রতীক পেয়েই মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের দোয়া নিলেন মো: তারেক উদ্দিন তাজ



ডেস্ক নিউজ:: ১০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রশাসনিক পরিচালক মো: তারেক উদ্দিন তাজ নির্বাচনী প্রতীক পেয়েছেন ঠেলাগাড়ি। প্রতীক পেয়েই ছুটে গিয়েছেন তার মামা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, মহাত্বা গান্ধী বোর্ড অব ট্রাস্টিজের ট্রাস্টিজ এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের কাছে।

মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ তারেক উদ্দিন তাজ’কে দোয়া করে বলেন ১০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ডিজিটাল উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত। এই ওয়ার্ডে তরুণ উদ্যমী নের্তৃত্ব প্রয়োজন। দীর্ঘদিন থেকে ১০নং ওয়ার্ডে নিষ্টার সাথে কাজ করে যাচ্ছ। জনগণ তোমার কাজের মূল্যায়ন করবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সুরমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু জাহিদ, মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট শামছুল ইসলাম, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শামছুল ইসলাম, মহানগর শ্রমীক লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম রুমেল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হাই হাদী, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিন।

এবিষয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী মো: তারেক উদ্দিন তাজ বলেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ শুধু আমার মামা বা অভিভাবক নন, তিনি সিলেটের আওয়ামী পরিবারের অভিভাবক ও বটবৃক্ষ। তৃণমূল নেতা কর্মীর শেষ আশ্রয়স্থল। আমার রাজনৈতিক পথ চলা, প্রেরণা, জনগণের পাশে দাড়ানো সব তারই নির্দেশনা। তাই আমি প্রতীক পেয়ে আমার শিকড়ের কাছে ছুটে যাই এবং দোয়া নিই। মামা আমাকে বলেছেন ঠেলাগাড়ি গরীব মেহনতি মানুষের প্রতীক, আর তুমি গরীব মেহনতি মানুষের পাশে থেকেছ দীর্ঘদিন থেকে, তারা অবশ্যই তোমার কাজের মূল্যায়ন করবে ।