সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
সিলেটে নিযুক্ত ভারতের সহকারী হাই-কমিশনারকে শুভেচ্ছা জানালেন মিসবাহ সিরাজ  » «   ওসমানীনগরে অবৈধ যানচলাচলে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা  » «   আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে মাদ্রাসা শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কমলগঞ্জ বিএনপির তিন ইউনিয়নের নতুন কমিটি অনুমোদন  » «   ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন তেরা মিয়া  » «   বারবার আ.লীগকে ক্ষমতায় বসাতে হবে …প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান  » «   ওসমানীনগরে গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   সিলেট-১: শেষবেলায় আ’লীগের চমক ড. ফরাসউদ্দিন না কামরান  » «   ছাত্রদল থেকে ছাত্রলীগে অনুপ্রবেশকারী রানা আহমদ রুনু’র অপকর্ম  » «   ফলো আপ: কমলগঞ্জের মহিলার লাশ উদ্ধার, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ জনকে আটক করেছে  » «  

সিলেটে লা-মাযহাব বিরোধি সমাবেশ স্থগিত



স্টাফ রিপোর্টার::  উলামা পরিষদ বাংলাদেশ ঘোষিত ১২ জুলাই সিলেট সিটি পয়েন্টের মহাসমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করায় আচরণবিধির প্রতি সম্মান জানিয়ে এ সমাবেশ স্থগিত করা হয়। একই সাথে বিতর্কিত বিষয় নিয়ে আলোচনার কথাও জানিয়েছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক।

মঙ্গলবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন উলামা পরিষদ বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহিবুর রহমান মিটিপুরী। তিনি বলেন, লা-মাযহাব মতাদর্শীদের সাথে ইসলামের মৌলিক কিছু বিষয় নিয়ে মতপার্থক্য রয়েছে। যা সাধারণ মুসলমানদের মধ্যে ফিতনা সৃষ্টি করছে। এমন তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা তাওহীদী জনতাকে সাথে নিয়ে রাজপথে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হই।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলেন, গত ১ জুন সিলেট কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশ করে উলামা পরিষদ কয়েকটি দাবি ও কর্মসূচি ঘোষণা করে। ১০ জুলাইয়ের মধ্যে দাবি আদায় না হলে ১২ জুলাই বৃহস্পতিবার পুণরায় সিলেট সিটি পয়েন্টে সমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
এর মধ্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের তফসিল ঘোষণা হওয়ায় নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী এ কর্মসূচি পালনে আইনী বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সিলেটের জেলা প্রশাসক নুমেরী জামান বিষয়টি আলোচনার জন্য মধ্যস্ততা করার কথাও জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পর বিতর্কিত ও আপত্তিকর বিষয়াদি নিয়ে আহলে হাদিসের সাথে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। সিলেটের জেলা প্রশাসক এ বৈঠকে মধ্যস্ততা করবেন। আলোচনার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত রয়েছি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে উলামা পরিষদের নেতারা বলেন, আমরা ইসলামের মৌলিক বিষয়ে ফিতনা চাই না। তাদের যেসব বিষয়ে আমরা আপত্তি জানিয়েছে তা নিয়ে আলোচনার ভিত্তিতে এর সমাধান আশা করছি। এ ধরণের বিতর্ক সাধারণ মুসলামানদের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে। ঈমান ও আক্বীদা বিনষ্ট করে এমন প্রচার-প্রচারণা থেকে বিরত থাকতে আহলে হাদিসসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানাচ্ছি।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম জালালী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশিদ আল-আজাদ, প্রচার সম্পাদক হুসাইন আহমদ, সহ-প্রচার সম্পাদক মাহমুদুল হাছান, নির্বাহী সদস্য শরীফ উদ্দিন বসন্তপুরী, মুফতি রশিদ আহমদ, আহমদ ছগীর, জাহিদ উদ্দীন চৌধুরী ও ইব্রাহীম প্রমুখ।