মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে পত্রিকা অফিসে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৫



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় পত্রিকা ‘ক্যাপিটাল গ্যাজেটের’ কার্যালয়ে এক বন্দুকধারীর হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত দুইজন। বৃহস্পতিবার মেরিল্যান্ডের এনাপোলিস শহরে এই ঘটনা ঘটে। খবর বিবিসির।

খবরে বলা হয়, ক্যাপিটাল গ্যাজেটের নিউজরুমের কাচের দরজা দিয়ে উন্মুক্তভাবে গুলি ছুড়েছে এক বন্দুকধারী। গুলি ছোড়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই পত্রিকাটির একজন সাংবাদিক, ফিল ড্যাভিস টুইট করে একথা জানান।

তিনি টুইটে লিখেন, নিজের টেবিলের নিচে লুকিয়ে থেকে একাধিক মানুষকে গুলিবিদ্ধ হতে শোনা ও তারপর বন্দুকধারীকে পুনরায় বন্দুকে গুলি ভরতে শোনার চেয়ে ভয়ঙ্কর কিছু নেই।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনায় নিহত পাঁচজনই গ্যাজেটের কর্মী ছিলেন। এর মধ্যে কয়েকজন সাংবাদিকও ছিলেন।

স্থানীয় এক পুলিশ প্রধান বিল ক্র্যাম্পফ বলেন, সন্দেহভাজন হামলাকারী একটি ‘শটগান’(বিশেষ প্রকারের আগ্নেয়াস্ত্র) নিয়ে ভবনটিতে প্রবেশ করে। সে ভবনের নিচের তলা দিয়ে প্রবেশ করে। সে তলাতেই পত্রিকাটির কার্যালয় অবস্থিত।

তিনি বলেন, এটা ক্যাপিটাল গ্যাজেটের ওপর একটা পরিকল্পিত হামলা ছিল।

তিনি জানান, হামলাকারী কাওকে নির্দিষ্টভাবে হত্যা করার চেষ্টা করেছিল কি-না অথবা পত্রিকাটির কোন কর্মী তার পরিচিত ছিল কি-না সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সন্দেহভাজন হামলাকারী একজন শ্বেতাঙ্গ পুরুষ। তার বয়স ৩০-এর কোঠায়। হামলার পর সে ভবনের একটি টেবিলের নিচে লুকিয়ে ছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, তাকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এই হামলার উদ্দেশ্য কি ছিল সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি।

কর্তৃপক্ষ এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বন্দুকধারীর নাম প্রকাশ করেনি। তবে একাধিক আইন প্রয়োগকারী সূত্র জানিয়েছে, এই ব্যক্তির নাম জারড ওয়ারেন রামোস।

এক সূত্র জানিয়েছে, পত্রিকাটির ওপর রামোসের ক্ষোভ থাকতে পারে। সে ২০১২ সালে পত্রিকাটির বিরুদ্ধে একটি মানহানীর মামলা করেছিল। কিন্তু তা বাতিল হয়ে যায়।