সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

অভিবাসী পরিবারগুলোকে বিচ্ছিন্ন করার নীতি পাল্টালেন ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: নিজ দল রিপাবলিকান, ডেমোক্র্যাটস ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপে সিদ্ধান্ত পাল্টাতে বাধ্য হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার তিনি এক নির্বাহী আদেশে অবৈধ অভিবাসনের অভিযোগে আটক পরিবারের সদস্যদের একসঙ্গে রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

গত ৫ মে থেকে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের অভিযোগে প্রায় দুই হাজার ৩০০ শিশুকে তাদের বাবা-মা ও স্বজনদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার পর মত পাল্টালেন ট্রাম্প।

এ শিশুদের বিভিন্ন আশ্রয় শিবির ও স্থাপনায় এমনভাবে রাখা হয়েছিল, যাতে তাদের বাবা-মায়েদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব না হয়।

নির্বাহী আদেশে সই করার পর ট্রাম্প বলেন, গ্রেফতার বাবা-মায়ের কাছ থেকে সন্তানদের বিচ্ছিন্ন করার দৃশ্য তিনি আর দেখতে চান না।

তবে ইতিমধ্যে যে পরিবারগুলোকে বিচ্ছিন্ন করে আলাদাভাবে রাখা হয়েছে, তাদের বিষয়ে নির্বাহী আদেশে কিছু বলা হয়নি।

চাপের মুখে অভিবাসননীতিতে পরিবর্তন আনলেও ট্রাম্প বলেছেন- তার সরকার অবৈধ অভিবাসনের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্সনীতি’ অব্যাহত রাখবে এবং সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের বিচার চালিয়ে যাবে। ট্রাম্প বলেন, তার স্ত্রী মেলানিয়া ও মেয়ে ইভানকা অভিবাসী পরিবারগুলোকে বিচ্ছিন্ন করার নীতি পরিবর্তনের পক্ষে জোরালো অবস্থানে ছিলেন।

তিনি বলেন, আমার মনে হয়, হৃদয়বান যে কেউ বিষয়টি অনুধাবন করতে পারবে। পরিবারগুলো বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে, এটি আমরা আর দেখতে চাই না।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এর আগে বলেছিলেন- নির্বাহী আদেশ দিয়ে তিনি ওই নীতিতে পরিবর্তন আনতে পারবেন না। তিনি আভাস দিয়েছিলেন, এর জন্য কংগ্রেসের সম্মতি প্রয়োজন হবে