সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে ‘মুক্তির সোপান’ পাঠচক্র কার্যক্রমের উদ্বোধন



ডেস্ক নিউজ::  মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির আইন ও বিচার বিভাগের এলএলবি (অনার্স) প্রোগ্রামের ৩২তম ব্যাচের উদ্যোগে ‘ওরে, আয় ছুটে আজ আয়, ডানা মেলে যাই হারিয়ে বইয়েরই মেলায়’ শীর্ষক শ্লোগানকে সামনে রেখে ‘মুক্তির সোপান’ পাঠচক্র কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এম. হাবিুবর রহমান লাইব্রেরি হলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী।
‘মুক্তির সোপান’ পাঠচক্র মূলত শিক্ষার্থীদের দ্বারা বিভিন্নভাবে বই সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও পাঠের উদ্দেশ্যে বিভাগের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ কার্যক্রম।
আইন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. রবিউল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাদিয়া রিফাতের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর খন্দকার মাহমুদুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নজরুল হক চৌধুরী, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ফজলুর রব তানভীর, আইন ও বিচার বিভাগের প্রধান গাজী সাইফুল হাসান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পাঠচক্র কার্যক্রমের তত্ত্বাবধায়ক সহকারী অধ্যাপক মো. শের-ই-আলম, এলএল.এম. (সান্ধ্য পোগ্রাম) এর সমন্বয়ক শেখ আশরাফুর রহমান, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রমা ইসলাম, ৩২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী তারাজুল ইসলাম খান প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী বলেন, ‘বই পড়া ব্যতীত সুন্দর জীবন গঠন সম্ভব নয়। শুধু কারিকুলামে অন্তর্ভূক্ত বই নয়, বরঞ্চ অন্যান্য বইও পড়া জরুরি। বই আত্মার খোরাক জোগায়, মানুষের জ্ঞানের পরিধি বাড়ায় এবং ঘুমন্ত বিবেককে জাগিয়ে তোলে। একমাত্র বই-ই পারে মানুষকে শ্রেষ্ঠ মানব হিসেবে গড়ে তুলতে। এ বিশ্বের বড় বড় জ্ঞানী ব্যক্তিরাই ছিলেন বইপ্রেমিক, বই ছিল তাদের পরম সাথী। ব্যক্তি ও পরিবারকে আলোকিত করতে এবং সমাজকে উন্নত করতে বই ও পাঠাগারের গুরুত্ব অপরিসীম।’ তিনি এ উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং এ কার্যক্রমের সফলতা কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল রচিত ‘নূরুল ও তার নোট বই’ এবং জাহানারা ইমামের ‘একাত্তরের দিনগুলি’ বই দুটির পর্যালোচনা করেন ৩২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী তনশ্রী রায় ও নুসরাত জাহান শিমুল। অনুষ্ঠানে ইইই বিভাগের প্রধান সহাকরী অধ্যাপক মিয়া মো. আসাদুজ্জামান, আইন ও বিচার বিভাগের সিনিয়র প্রভাষক ব্যারিস্টার মোহাম্মদ আবুল ফজল চৌধুরী, সহকারী রেজিস্ট্রার ও জনসংযোগ কর্মকর্তা লোকমান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।