সোমবার, ২০ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর

সৌদি যুবরাজ সালমান গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সৌদি আরবের ভিন্নমতাবলম্বী ও ইসলামিক রিনিউয়াল পার্টির নেতা ড. মোহাম্মাদ আল-মাসারি বলেছেন, রাজধানী রিয়াদে রাজপ্রাসাদের বাইরে গোলাগুলির ঘটনায় সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছিলেন।

আর এ কারণেই তাকে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রকাশ্যে দেখা যাচ্ছে না।

লেবাননের আল-মায়াদিন টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেছেন বলে ইরানের সংবাদমাধ্যম প্রেসটিভি ও পারস টুডে জানিয়েছে।

তিনি আরও বলেছেন, ২১ এপ্রিলের হামলার ঘটনা মোহাম্মদ বিন সালমান গুলিবিদ্ধ হন। এর পর তিনি পাশের একটি বাংকারে আশ্রয় নেন। রাজপরিবার থেকেই প্রথমে যুবরাজের গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর প্রকাশ পায় বলে তিনি জানান।

বর্তমানে ব্রিটেনে নির্বাসিত সৌদি ভিন্নমতাবলম্বী আল-মাসারি বলছেন, সৌদি রাজপ্রাসাদে অভ্যুত্থানচেষ্টা এবং তার আহত হওয়ার ঘটনা স্বীকার করতে চায় না সৌদি সরকার। এ কারণে সেসব ঘটনাকে আড়াল করতে এবং বানোয়াট তথ্য দিতে মোহাম্মদ বিন সালমান খুব শিগগির মিডিয়ার সামনে আসার পরিকল্পনা নিয়েছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

২১ এপ্রিল বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয় যে, রিয়াদে সৌদি রাজপ্রাসাদের বাইরে ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ পাওয়া গেছে। ওই ঘটনার ছবিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এর পর সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা দাবি করে, একটি খেলনা ড্রোন নামাতে গিয়েই গুলি ছোড়েন নিরাপত্তারক্ষীরা। ড্রোনটি রাজপ্রাসাদের খুব কাছাকাছি চলে এসেছিল।

কিন্তু ড. আল-মাসারি বলছেন, সেদিন সত্যিই অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছিল এবং সে ঘটনায় যুবরাজ গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন।

তিনি বলেন, গোলাগুলির ঘটনার সঙ্গে ড্রোনের কোনো সম্পর্ক নেই। গাড়ি থেকে ভারী মেশিনগান দিয়ে ব্যাপক গুলি চালানো হয়। মোহাম্মদ বিন সালমান কয়েকটি দেশ সফর শেষে রিয়াদে ফেরার পরপরই এ ঘটনা ঘটে।