মঙ্গলবার, ২১ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর

শিশুদের পুষ্টিকর খাদ্য না খাওয়ালে তারা মেধাবী হবে না –সচিব সুভাষ চন্দ্র



২য় জাতীয় পুষ্টি পরিকল্পনা অবহিতকরণ কর্মশালা
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুভাষ চন্দ্র সরকার বলেছেন, জন্মের পর শিশুর প্রথম দুই বছর মস্তিষ্কের পরিধি বাড়ে।

এ সময় তাকে পুষ্টিকর খাবার দিতে হবে। শিশুদের পুষ্টিকর খাবার না খাওয়ালে তারা মেধাবী হবে না। পুষ্টিকর খাবার ব্যাপারে সকলকে সচেতন হতে হবে।

বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে হকারদের উপদ্রব দেখা যায়। তাদের এসব খাবার স্বাস্থ্যকর নয়। এসব খাবার খেয়ে শিশু শিক্ষার্থীরা প্রায়ই অসুস্থ হয়ে পড়ে। ভেজাল খাদ্য পরিহার করতে আমাদেরকে আরো সচেতন হতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বাজারে আয়োডিন যুক্ত লবণের ছড়াছড়ি, লবণে আয়োডিন আছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখতে হবে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদেরকে পুষ্টি সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। বিশেষ করে মা’দেরকে পুষ্টি বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়ানোর আহ্বান জানান।

তিনি ২৮ এপ্রিল শনিবার সকাল ১১টায় সিলেট বিভাগ পরিবার পরিকল্পনা পরিচালক সম্মেলন কক্ষে দ্বিতীয় জাতীয় পুষ্টি পরিকল্পনা অবহিতকরণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি পরিষদের আয়োজনে সূচনা, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউনিসেফ এর সহায়তায় অবহিতকরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাক্তার নারায়ণ চন্দ্র সরকার।

সিলেট বিভাগীয় অফিসের মেডিকেল অফিসার মিঠুন ভৌমিকের পরিচালনায় কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব ইলিয়াছ কবির।

সিলেট বিভাগীয় সদর দপ্তর জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আলমগীর এর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সূচিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী পরিচালক নার্সিং ইলা রাণী সাহা।

সভায় পুষ্টি খাতের অগ্রগতি ও বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে বক্তব্য তুলে ধরেন বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি পরিষদের সহকারী পরিচালক ডা. এ এম হাসান মাহমুদ, বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি পরিষদ গঠন ও কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা করেন বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি পরিষদের সহকারী পরিচালক ডা. নাজমুস সালেহীন, দ্বিতীয় জাতীয় পুষ্টি পরিকল্পনা, মূলনীতি থিমেটিক বিষয় ও বাস্তবায়ন, অগ্রগতি ও বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে আলোচনা করেন বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি পরিষদের সহকারী পরিচালক ডা. নাজিয়া বিনতে আলম, সিলেট জেলা সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায়, মৌলভীবাজার জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোঃ আবু জাহেদ, মৌলভীবাজার জেলা পরিচালবক (পরিবার-পরিকল্পনা) এ কে এম আব্দুস সোবহান। বিজ্ঞপ্তি