শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ধানের শীষকে বিজয়ী করতে হবে: মো. শাহজাহান  » «   সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রীসহ ১৫ লাখ মানুষের তথ্য হ্যাকড  » «   ভারতীয় সেনাবাহিনীকে বাংলাদেশের ভূখণ্ড দখলের আহবান!  » «   সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক সংস্কারের দাবীতে ২৪ জুলাই কর্মবিরতী পালনের ডাক  » «   যুবদের কর্মসংস্থান ও নগরীর সার্বিক উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিব: তাহের  » «   নানা হলেন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান  » «   ধর্মপাশায় প্রচন্ড গরমে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   কামরানের নৌকার সমর্থনে নগরীতে কানাইঘাট উপজেলা আ’লীগের গণসংযোগ  » «   কমলগঞ্জে হিট স্ট্রোকে একজনের মৃত্যু: জনজীবন বিপর্যস্ত  » «   মেয়র প্রার্থী ডাঃ মোয়াজ্জেম হোসেনের কদমতলীতে মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময়  » «  

গান পাগল, পাগল হাসান



মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান:: পাগল হাসান। আমাদের ছোট্ট শহর সুনামগঞ্জ থেকে উঠে আসা একজন সেল্ফ মেড ম্যান।

যাকে নিয়ে ব্যাক্তিগত ভাবেই বড়াই করে কথা বলতে পারি।
তরুন শিল্পী ও গীতিকার পাগল হাসানের জন্ম সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় শিমুলতলা গ্রামে ।

হাছানরাজা, রাধারমন, শাহ্ আব্দুল করিম, দূরবীন শাহ এর গান তার কন্ঠে এবং দেহ ভঙ্গিমায় চমৎকার সিল্ক করে।

তরুন এই গীতিকার লিখেছেন অসংখ্য গান। দেশের নামকরা শিল্পীরা তাঁর লেখা গান গেয়ে স্রোতাদের হৃদয় আর্চ সহ জনপ্রিয়তা কুঁড়িয়ে নিয়েছেন।

কন্ঠশিল্পী
আসিফ আকবর, সালমা, কাজী শুভ, গামছা পলাশ, কিশোর পলাশ, আশিক, রাশেদ, এফ এ সুমন, পলি, শায়লা, জাহিন, রিমা, রাজীব শাহ, ক্ষুদে গানরাজ প্রান্তি, আশা, সহ আরো অনেক গায়ক তাঁর লেখা গান গেয়ে শ্রোতাদের মনোরঞ্জন করেছেন।

তাঁর লেখা গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য গানগুলো হলো-

১. আসমানে যাইও নারে বন্ধু
২. আমার বাড়ী রইলো নিমন্ত্রণ
৩. এই কি তুমার প্রেমের প্রতিদান
৪. কলঙ্কী বানাইলা রে বন্ধু
৫. মানব গাড়ী আগের মতো চলে না
৬. মনে লয় ডুবিতাম যমুনায়
৭. কে দিলো রে তোর পায়ে শিকল
৮. ভাব কইরা তোর সনে রে বন্ধু
৯. শোন মন মনুরা মাটির ও পিঞ্জিরা
১০. গ্রামে গঞ্জে গেলে শুনি
১১. চাইনা তুমার সুখের নদী
১২. দয়াল আমরা সবাই পেসেঞ্জার
১৩. দয়ালের দয়া যারে হয়
১৪. প্রেম পাগলামি
১৫. যার কারণে বৃন্দাবনে

সহ আরও সুমধুর হৃদয় সাড়া জাগানো গান রয়েছে। এছাড়াও অন্যান্য গীতিকবিদের লেখা গান সুর করেছেন। তাঁর সুর করা গান দেশের খ্যাতনামা শিল্পীবৃন্দ গেয়েছেন।

পাগল হাসান জেলা শিল্পকলা একাডেমী সুনামগঞ্জ ও স্পন্দন সাংস্কৃতিক ও সঙ্গীত বিদ্যালয়ে গানের তালিম নেন।

তিনি ২০১৬ থেকে সঙ্গীত অঙ্গনে নিজে গান গাওয়া শুরু করেন।

এ পর্যন্ত নিজের লেখা ও সুর করা “আন্তঃনগর” ও “পাপিষ্ঠ বান্দা” শিরোনামে দুটি একক গানের এলবাম প্রকাশ করেন

দুটি এলবামের গানের কথা সুর ও গায়কি দিয়ে অল্প সময়েই ছড়িয়েছেন নিজের দ্যুতি আর শ্রোতা মহলে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন ।

নিজের গাওয়া শ্রোতাপ্রিয় কয়েকটা গান

১. আমি এক পাপিষ্ঠ বান্দা
২. হৃদয় মাঝে রাখছি তোরে লুকাইয়া
৩. আওরে বন্ধু মাটির পিঞ্জিরায়
৪. আমার ময়নার মুখ ফুটিগেছে
৫. কি পিরিত বাড়াইলা রে বন্ধু
৬. মন আমার মরা নদী………………..

তিনি ২০০০ সাল থেকে গান লেখা শুরু করেন, বর্তমানে তাঁর লেখা গানের সংখ্যা হাজারের অধিক।

মোঃ মতিউর রহমান হাসান (পাগল হাসান) লেখাটাকেই নিজের জীবনের একমাত্র গভীর প্রয়োজন মনে করেন। আর লিখতে লিখতে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করতেই তার অন্তিম বাসনা।