রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সরকার মানুষের মৌলিক অধিকার স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর –অতিরিক্ত সচিব



সীমান্তিক পরিবার পরিকল্পনা প্রকল্পের উদ্বোধন
ডেস্ক নিউজ:: অতিরিক্ত সচিব, ফিল্ড সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রোগ্রাম পরিচালক (অর্থ ও লাইন) প্রণব কুমার নিয়াজী বলেছেন, বর্তমান সরকার মানুষের মৌলিক অধিকার স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর।

স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দিতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষকে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দিতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সেসব সুযোগ সুবিধা বস্তি ও কলোনী এলাকায় পৌছে দিতে সীমান্তিকের দায়িত্বশীলদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

তিনি বলেন, মাতৃমৃত্যুর হার কমাতে সীমান্তিক সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। এই প্রজেক্ট সফল ভাবে বাস্তবায়ন হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করতে সিলেট সিটি কর্পোশনের জনপ্রতিনিধি সহ সর্ব মহলের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

তিনি গতকাল ১৬ এপ্রিল সোমবার বিকেলে সিলেট বিভাগীয় পরিবার-পরিকল্পনা বিভাগীয় অফিসের হল রুমে সীমান্তিকের উদ্যোগে ও পরিবার-পরিকল্পনা অধিদপ্তরের আর্থিক সহযোগিতায়, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আওতায় কলোনীসমূহ ও বস্তি এলাকায় পরিবার পরিকল্পনা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সীমান্তিক পরিবার-পরিকল্পনা প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

পরিবার পরিকল্পনা সিলেট বিভাগীয় পরিচালক, যুগ্ম সচিব কুতুব উদ্দিনের সভাপতিত্বে, সীমান্তিকের উপ-নির্বাহী পরিচালক কাজী হুমায়ুন কবির এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ, মিনিষ্টি অব হেলথ এন্ড ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার এর ডেপুটি চীফ আব্দুস সালাম খান, সিলেট স্বাস্থ্য বিভাগের ভারপ্রাপ্ত ডাইরেক্টর ডা. নারায়ন চন্দ্র সাহা, পরিবার পরিকল্পনা সিলেটের উপ-পরিচালক ডা. লুৎফুন নাহার জেসমিন, সীমান্তিকের চেয়ারপার্সন মাজেদ আহমদ, শামীম আহমদ চৌধুরী, সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবিন রুবা, সদস্য মতিউর রহমান মতি, সিসিকে’র কাউন্সিলর শাহানারা বেগম, সিলেট মহানগর ইমাম সমিতির সভাপতি হাবিব আহমদ শিহাব, ডা. ধ্রুব পুরকায়স্থ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন, সাংবাদিক, ইমাম ও সুধীজন সহ এনজিও সংস্থার নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, সিলেট সিটি কর্পোশনের ২৭টি ওয়ার্ডের সকল মহল্লা ও বস্তীর নি¤œ ও মধ্য আয়ের মানুুদের রেজিস্ট্রেশন করে কাউন্সিলের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে অবহিতকরণ ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে শতভাগ সার্ভিস নিশ্চিত করতে ফ্যামিলি প্লানিং প্রজেক্ট কাজ করবে।