শুক্রবার, ২০ এপ্রিল ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
ধর্মপাশায় একটি পাগলা কুকুরের কামড়ে ১৫জন আহত  » «   সিলেটে কর্মশালা: দায়িত্বশীল সাংবাদিকতা অপরিহার্য  » «   ছাত্র সমাজের মধ্যে প্রকৃত আদর্শ বিলিয়ে দিতে হবে- মাহবুবুর রহমান ফরহাদ  » «   আবারো ত্রিভুবনে ১৩৯ যাত্রী নিয়ে রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ল মালয়েশিয়ার বিমান  » «   ১২ মাস ভিজিএফ’র চাল ও নগদ অর্থ বিতরণ করে প্রমাণ হয়েছে এ সরকার কৃষি বান্ধব  » «   লন্ডন সিলেট ফ্রেন্ডশীপ অর্গানাইজেশনের মুকিত কে সংবর্ধনা  » «   মৌলভীবাজারে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে  » «   নগরী থেকে রবিউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি নিখোঁজ  » «   জ্ঞানের রাজ্যে ভ্রমণের জন্য তো কোনো পাসর্পোট ভিসা লাগেনা–প্রণবকান্তি দেব  » «   কৃষি জমি রক্ষার দাবীতে ফতেহপুরবাসীর প্রতিবাদ সভা  » «  

সংবাদ সম্মেলনে তিন নেতা: ‘চোখ বেঁধে আমাদের তুলে নেয়া হয়’



নিউজ ডেস্ক::  চোখ বেঁধে ডিবি কার্যালয়ে তুলে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের তিন নেতা। তারা তিনজনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীর সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন তারা।

এর আগে সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে কর্মসূচি ঘোষণা করেন তারা।

পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত ছাত্রদের দেখতে যাওয়ার সময় সাদা পোষাকের কয়েকজন পুলিশ কমিটির তিন নেতা যুগ্ম সমন্বয়ক মোহাম্মদ রাশেদ খাঁন, নুরুল হক নূর ও ফারুক হাসানকে জোর করে একটি সাদা মাইক্রোতে তুলে নেয়। কিছুক্ষণ পর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

ফিরে এসে আবার সংবাদ সম্মেলন করে তিনি নেতা। সংবাদ সম্মেলনে তিন নেতাই বলেন, জবরদস্তি করে পুলিশ তাদের মাক্রোবাসে তুলে নেয়। গাড়িতে উঠিয়ে সবার চোখ বেঁধে ফেলা হয়। পরে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।