সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
নাস্তিক ফতোয়া দিয়ে ফের আলোচনায় এমপি কয়েছ( ভিডিও সহ)  » «   আফগানদের হারিয়ে ফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল বাংলাদেশ  » «   প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে সিলেট কওমি মাদরাসা বোর্ডের শুকরিয়া মিছিল  » «   বিশ্বনাথে গোপন বৈঠক কালে ১৭ জামাত নেতা আটক  » «   হোটেল শ্রমিক উইনিয়নের বিক্ষোভ মিছিল  » «   জেলা পরিষদের অর্থায়নে সংযোগ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন-এড. লুৎফুর রহমান  » «   জগন্নাথপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৫ জনের জামিন হওয়ায় এলাকায় স্বস্তি  » «   বিশ্বনাথে মাজার নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন  » «   সিলেট-৫ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ফয়জুল মুনির চৌধুরী’র মোটর সাইলেক শোডাউন  » «   চারখাই ত্রিমুখে ‘শহীদ নাহিদ চত্বর’র উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «  

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল না করতে জগন্নাথপুরে মানববন্ধন



জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিলের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১৫ এপ্রিল রোববার জগন্নাথপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনে প্রধান সড়কে মানবন্ধন ও প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়।

জগন্নাথপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবদুল কাইয়ূমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের যুগ্ম-আহবায়ক শাহ সিরাজ কুতুবী’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা রঞ্জিত কান্তি দাস, আবদুল হক, ইলিয়াছ আলী, নরেন্দ্র দাস, শৈতেন্দ্র দাস, আছলম উল্লাহ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহবায়ক আবুল কয়েছ, সদস্য শাহ জামাল, আজিজ মিয়া, গোপাল গোপ, হাবিবুর রহমান, খোকন গোপ, রাসেল মিয়া, নিহার তালুকদার, রিপন মিয়া, মানবেন্দ্র তালুকদার প্রমূখ।

এ সময় জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মো.শাহজাহান মিয়া সহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তারা বলেন, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হচ্ছেন বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ। যাদের রক্তের বিনিময়ে এ দেশে স্বাধীন হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সারা দিয়ে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন বীর সেনারা।

তাদেরকে অবশ্যই মূল্যায়ন করতে হবে। তাই মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল না করতে সেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহবান জানানো হয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল না করতে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্বারকলিপি প্রদান করা হয়।