বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
অংশগ্রহণমূলক জাতীয় নির্বাচন চায় ইইউ  » «   ছাতকে পানিতে ডুবে দু’বোনের মৃত্যু  » «   বিমানবন্দরে গণসংবর্ধনা: যুক্তরাজ্যে সংক্ষিপ্ত সফর শেষে দেশে ফিরলেন মিসবাহ সিরাজ  » «   জৈন্তাপুরে তথ্য অধিকার বাস্তবায়ন ও পরীবিক্ষণ উপজেলা কমিটির সভা  » «   প্রচন্ড গরমে পুড়ছে জগন্নাথপুর  » «   সিলেটে কাউন্সিলর প্রার্থীর প্রচারণায় হামলা : আহত তিন  » «   নির্বাচন ঘিরে নিরাপত্তা: উদ্বেগ, উৎকন্ঠায় সিলেট নগরবাসী  » «   এইচএসসি পরীক্ষায় বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ’র ধারাবাহিক সাফল্য  » «   কামরানের নৌকার সমর্থনে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সভা  » «   আদালতপাড়া ও আখালীয়া এলাকায় টেবিল ঘড়ির সমর্থনে গণসংযোগ  » «  

শুধু একজনের জন্য হেরেছি মনে করি না: মুশফিক



স্পোর্টস ডেস্ক:: শিরোপার এতটা কাছে গিয়ে ফাইনালে হারের হতাশা নিয়ে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। সোমবার দুপুরে শ্রীলঙ্কা থেকে দেশে ফেরেন সাকিব-মুশফিকরা।

খুব কাছে গিয়ে পরাজয় ভক্তদের যতটা না পোড়ায় তার থেকে বেশি পোড়ায় মাঠের ক্রিকেটারদের।

পাঁচবার ফাইনালে গিয়ে শিরোপা না ছোঁয়ার হতাশা তাই লুকাননি মুশফিক। তবে শিখতে চান এখান থেকেই। আর বিসিবি সভাপতি মনে করেন ফাইনালে হারলেও বীরের মত লড়েছে পুরো দল। বিমানবন্দরে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন মুশফিক। সেখানেই জানান এই হারের বেদনা আজীবন মনে রাখবেন।

তবে এখান থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেট আরও এগিয়ে যাবে বলে মনে করেন সাবেক অধিনায়ক। মুশফিক বলেন, খারাপ লাগা স্বাভাবিক। জয়ের এতো কাছে এসে ট্রফি হাতছাড়া হওয়াটা মানসিক যন্ত্রণা দিচ্ছে। তবে আগামীতে এমন পরিস্থিতি এলে আমরা যেন মানসিক স্থিতিটা শক্ত রাখতে পারি, এটাই লক্ষ্য থাকবে। এবার ফাইনালে হারার দুঃখটা আজীবন মনে রাখবো, এখান থেকে যেন আমরা আরও সামনে এগিয়ে যেতে পারি সেই চেষ্টাই করবো।

হারের জন্য একক কাউকে দায়ী করতে চান না মুশফিক। বাংলাদেশের সবচেয়ে ধারবাহিক পারফর্মার ব্যাটসম্যান মুশফিক বলেন, এটা শুধু একজনের জন্য হয়েছে- এটা আমি মনে করি না।

বোলাররা মিলে কয়েকটা রান কম দিলেই হয়ে যেত কিংবা ব্যাটসম্যানরা যদি আরও ১০টা রান বেশি করতো তাহলেও সমস্যা হতো না। এটা টিম গেম, একজনের ব্যর্থতা মানে সবারই ব্যর্থতা। আমরা চেষ্টা করবো ভুলগুলো কাটিয়ে উঠতে। সৌম্যর এটাই প্রথম অভিজ্ঞতা। পরে আবার যখন সুযোগ আসবে, আশা করি তখন এরচেয়ে ভালো করবে।

বিসিবি সভাপতি মনে করেন বীরের মতো লড়াই করেছে টাইগাররা। বলেছেন, হার-জিত থাকবেই, এটা বড় কথা না। আমরা চেয়েছি যেন ভালো ক্রিকেট হয়। ছেলেরা মাঠে সেটাই দেখিয়েছে। তারা বীরের মতো খেলেছে। ক্রিকেটে এটাই নিয়তি। হার জিত যাই হোক থেমে থাকার অবকাশ নেই।