মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
এমপি কয়েছের বিরুদ্ধে লন্ডনে নালিশ: আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ -গোলাপগঞ্জে শিক্ষামন্ত্রী  » «   ছাতকে সুরমা নদীতে নিখোঁজ নৌকা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার  » «   শিক্ষার উন্নয়নে মুনাফার মানসিকতা ত্যাগের আহ্বান শেখ হাসিনার  » «   সিলেটে নিযুক্ত ভারতের সহকারী হাই-কমিশনারকে শুভেচ্ছা জানালেন মিসবাহ সিরাজ  » «   ওসমানীনগরে অবৈধ যানচলাচলে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা  » «   আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে মাদ্রাসা শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কমলগঞ্জ বিএনপির তিন ইউনিয়নের নতুন কমিটি অনুমোদন  » «   ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন তেরা মিয়া  » «   বারবার আ.লীগকে ক্ষমতায় বসাতে হবে …প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান  » «  

শুধু একজনের জন্য হেরেছি মনে করি না: মুশফিক



স্পোর্টস ডেস্ক:: শিরোপার এতটা কাছে গিয়ে ফাইনালে হারের হতাশা নিয়ে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। সোমবার দুপুরে শ্রীলঙ্কা থেকে দেশে ফেরেন সাকিব-মুশফিকরা।

খুব কাছে গিয়ে পরাজয় ভক্তদের যতটা না পোড়ায় তার থেকে বেশি পোড়ায় মাঠের ক্রিকেটারদের।

পাঁচবার ফাইনালে গিয়ে শিরোপা না ছোঁয়ার হতাশা তাই লুকাননি মুশফিক। তবে শিখতে চান এখান থেকেই। আর বিসিবি সভাপতি মনে করেন ফাইনালে হারলেও বীরের মত লড়েছে পুরো দল। বিমানবন্দরে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন মুশফিক। সেখানেই জানান এই হারের বেদনা আজীবন মনে রাখবেন।

তবে এখান থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেট আরও এগিয়ে যাবে বলে মনে করেন সাবেক অধিনায়ক। মুশফিক বলেন, খারাপ লাগা স্বাভাবিক। জয়ের এতো কাছে এসে ট্রফি হাতছাড়া হওয়াটা মানসিক যন্ত্রণা দিচ্ছে। তবে আগামীতে এমন পরিস্থিতি এলে আমরা যেন মানসিক স্থিতিটা শক্ত রাখতে পারি, এটাই লক্ষ্য থাকবে। এবার ফাইনালে হারার দুঃখটা আজীবন মনে রাখবো, এখান থেকে যেন আমরা আরও সামনে এগিয়ে যেতে পারি সেই চেষ্টাই করবো।

হারের জন্য একক কাউকে দায়ী করতে চান না মুশফিক। বাংলাদেশের সবচেয়ে ধারবাহিক পারফর্মার ব্যাটসম্যান মুশফিক বলেন, এটা শুধু একজনের জন্য হয়েছে- এটা আমি মনে করি না।

বোলাররা মিলে কয়েকটা রান কম দিলেই হয়ে যেত কিংবা ব্যাটসম্যানরা যদি আরও ১০টা রান বেশি করতো তাহলেও সমস্যা হতো না। এটা টিম গেম, একজনের ব্যর্থতা মানে সবারই ব্যর্থতা। আমরা চেষ্টা করবো ভুলগুলো কাটিয়ে উঠতে। সৌম্যর এটাই প্রথম অভিজ্ঞতা। পরে আবার যখন সুযোগ আসবে, আশা করি তখন এরচেয়ে ভালো করবে।

বিসিবি সভাপতি মনে করেন বীরের মতো লড়াই করেছে টাইগাররা। বলেছেন, হার-জিত থাকবেই, এটা বড় কথা না। আমরা চেয়েছি যেন ভালো ক্রিকেট হয়। ছেলেরা মাঠে সেটাই দেখিয়েছে। তারা বীরের মতো খেলেছে। ক্রিকেটে এটাই নিয়তি। হার জিত যাই হোক থেমে থাকার অবকাশ নেই।