শুক্রবার, ২০ এপ্রিল ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
১২ মাস ভিজিএফ’র চাল ও নগদ অর্থ বিতরণ করে প্রমাণ হয়েছে এ সরকার কৃষি বান্ধব  » «   লন্ডন সিলেট ফ্রেন্ডশীপ অর্গানাইজেশনের মুকিত কে সংবর্ধনা  » «   মৌলভীবাজারে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে  » «   নগরী থেকে রবিউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি নিখোঁজ  » «   জ্ঞানের রাজ্যে ভ্রমণের জন্য তো কোনো পাসর্পোট ভিসা লাগেনা–প্রণবকান্তি দেব  » «   কৃষি জমি রক্ষার দাবীতে ফতেহপুরবাসীর প্রতিবাদ সভা  » «   ‘কোটা পদ্ধতি তুলে নেয়ার এখতিয়ার প্রধানমন্ত্রীর নেই’ –মির্জা ফখরুল  » «   ‘বঙ্গভূম’ অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন  » «   আসিফা ধর্ষণ ও হত্যা নিয়ে সরব হলেন আলিয়া ভাট  » «   নূপুর বেতার ক্লাবের লোক উৎসব শুক্রবার  » «  

নারকস’র যাত্রা শুরু



ডেস্ক নিউজ:: সিলেটে বেসরকারি মাদকাশক্ত নিরাময় কেন্দ্র মালিকদের নিয়ে সংগঠন নেটওয়ার্ক অব এডিকশন রি-হ্যাবিলাইটেশন সেন্টার অব সিলেটের (নারকস) যাত্রা শুরু হয়েছে।

গত রোববার রাতে মাদকাশক্তি নিরাময় কেন্দ্রের মালিকদের নিয়ে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। এইম ইন লাইফের চেয়ারম্যান সৈয়দ খিজির হোসেন এ্যানুকে সভাপতি ও প্রতিশ্রুতির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিবুল ইসলাম তুহিনকে সাধারন সম্পাদক করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির অন্যরা হলেন-সহ-সভাপতি কামাল আহমদ খান (প্রেরণা), সহ সাধারন সম্পাদক এজাজ ঠাকুর চৌধুরী (সূর্য), সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদ আহমদ বাবু (নিউ প্রশান্তি), কোষাধ্যক্ষ মো. নুরুজ্জামান (প্রত্যাশা), দপ্তর সম্পাদক মাশরুর আলম (আহবান), প্রচার সম্পাদক নিখিল তালুকদার (আদর), সমাজসেবা বিষয়য়ক সম্পাদক জামাল আহমদ খান (বাঁধন), আইন বিষয়ক সম্পাদক রিপন আহমদ (উদ্দীপন)। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন-ছমির আলী (উদ্দীপন), মঞ্জুর আহমদ (প্রত্যাশা), মিহির দেব (নিউ প্রশান্তি), দেওয়ান মুরাদ হাসান (এইম ইন লাইফ), মারুফ আহমদ চৌধুরী (আহবান), আনসার উদ্দিন হীরা (প্রতিশ্রুতি), ওহিদুর রহমান জিয়া (আদর), শাইস্তা মিয়া (এইম ইন লাইফ), কামরুল হাসান চৌধূরী বিপ্লব (প্রেরণা), সঞ্জয় দত্ত (প্রতিশ্রুতি), আলম চৌধুরী (নিউ প্রশান্তি), গৌতম কুমার রায় (সুর্য) ও সৈয়দ মিলাদ হোসেন (সুর্য)।

এর আগে বিভাগীয় মাদকাশক্তি নিরাময় কেন্দ্রের মালিকদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অহিদুর রহমান জিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা সিলেটে মাদকের ব্যাপক ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সভায় জানানো হয় যেহারে মাদকাশক্ত লোকজন বাড়ছে তাতে আমাদের তরুণ ও যুব সমাজ ধবংসের দ্বারপ্রান্তে। বিশেষ করে ইয়াবার ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন সংগঠনের কর্তা ব্যক্তিরা। এসব বন্ধে ব্যাপক সচেতনতার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

সভায় মাদকাশক্তদের চিকিৎসার মান বাড়ানো এবং তাদেরকে সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে আলোচনা হয়। পাশাপাশি সিলেটকে মাদকমুক্ত করতে তারা বিভিন্ন কৌশলের কথা তুলে ধরেন। সিলেটের জনপ্রতিনিধি, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীসহ সকলস্তরের লোকদের সঙ্গে মতবিনিময় করার সিদ্ধান্ত হয়।