মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
এমপি কয়েছের বিরুদ্ধে লন্ডনে নালিশ: আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ -গোলাপগঞ্জে শিক্ষামন্ত্রী  » «   ছাতকে সুরমা নদীতে নিখোঁজ নৌকা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার  » «   শিক্ষার উন্নয়নে মুনাফার মানসিকতা ত্যাগের আহ্বান শেখ হাসিনার  » «   সিলেটে নিযুক্ত ভারতের সহকারী হাই-কমিশনারকে শুভেচ্ছা জানালেন মিসবাহ সিরাজ  » «   ওসমানীনগরে অবৈধ যানচলাচলে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা  » «   আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে মাদ্রাসা শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কমলগঞ্জ বিএনপির তিন ইউনিয়নের নতুন কমিটি অনুমোদন  » «   ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন তেরা মিয়া  » «   বারবার আ.লীগকে ক্ষমতায় বসাতে হবে …প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান  » «  

নারকস’র যাত্রা শুরু



ডেস্ক নিউজ:: সিলেটে মাদকাশক্ত নিরাময় কেন্দ্র মালিক ও পরিচালকদের নিয়ে সংগঠন নেটওয়ার্ক অব এডিকশন রি-হ্যাবিলাইটেশন সেন্টার অব সিলেটের (নারকস) যাত্রা শুরু হয়েছে।

রোববার মাদকাশক্তি নিরাময় কেন্দ্রের মালিক ও পরিচালকদের নিয়ে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। এইম ইন লাইফের চেয়ারম্যান সৈয়দ খিজির হোসেন এনুকে সভাপতি ও প্রতিশ্রুতির পরিচালক হাবিবুল ইসলাম তুহিনকে সাধারন সম্পাদক করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির অন্যরা হলেন-সহ-সভাপতি কামাল আহমদ খান, সহ সাধারন সম্পাদক এজাজ ঠাকুর চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদ আহমদ বাবু, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, দপ্তর সম্পাদক মাশরুর আলম, প্রচার সম্পাদক নিখিল তালুকদার, আইন বিষয়ক সম্পাদক রিপন আহমদ। কমিটির অন্যরা হলেন ছমির আলী, মঞ্জুর আহমদ, মিহির দেব, দেওয়ান মুরাদ হাসান, মারুফ আহমদ চৌধুরী, ওহিদুর রহমান জিয়া, আনসার উদ্দিন হীরা, শাইস্তা মিয়া, কামরুল হাসান চৌধূরী বিপ্লব, সঞ্জয় দত্ত, জামাল আহমদ, আলম চৌধুরী, গৌতম কুমার রায় ও সৈয়দ মিলাদ হোসেন।

এর আগে বিভাগীয় মাদকাশক্তি নিরাময় কেন্দ্রের মালিক ও পরিচালকদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অহিদুর রহমান জিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা সিলেটে মাদকের ব্যাপক ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সভায় জানানো হয় যেহারে মাদকাশক্ত লোকজন বাড়ছে তাতে আমাদের তরুণ ও যুব সমাজ ধবংসের দ্বারপ্রান্তে। বিশেষ করে ইয়াবার ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন সংগঠনের কর্তা ব্যক্তিরা। এসব বন্ধে ব্যপাক সচেতনতার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

সভায় মাদকাশক্তদের চিকিৎসার মান বাড়ানো এবং তাদেরকে সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে আলোচনা হয়। পাশাপাশি সিলেটকে মাদকমুক্ত করতে তারা বিভিন্ন কৌশলের কথা তুলে ধরেন। সিলেটের জনপ্রতিনিধি, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীসহ সকলস্তরের লোকদের সঙ্গে মতবিনিময় করার সিদ্ধান্ত হয়।