সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেটে বিস্ফোরক মামলায় আসামি হলেন যারা….



সুলতান সুমন ও শেখ আব্দুল মজিদ:: জিয়া অরফ্যানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সাজা হওয়ার প্রতিবাদে সিলেটে আওয়ামীরীগ-বিএনপি ও পুলিশের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি-যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল ও ছাত্রদলের ৫৫জানের নাম উল্লেখ্য করে এবং ১০০ থেকে ১৫০জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মোট ২০০জনের বিরুদ্ধে মামলা দাখিল হয়েছে।

এ মামলায় আসামি হলেন যারা–সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ মখন মিয়া, শাহজামাল নুরুল হুদা, স্বেচ্ছাসেকদল নেতা এড. সামসুজ্জামান জামান, মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী, মাহবুব চৌধুরী, ইমাদ হোসেন চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক হুয়ায়ুন আহমদ মাসুক, মো. মাহবুব কাদির, মহানগর বিএনপি নেতা আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, জেলা ছাত্রদল সভাপতি এড. সাঈদ আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদ , জেলা বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. মুজিবুর রহমান, ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক সাকিল মোর্শেদ, বিএনপি নেতা জিয়াউল গনি আরিফিন, আব্দুল ফাতাহ বকশি, এড. হাবিবুর রহমান, মাহবুবুল কাদের , আবু সালেহ লোকমান, ছাত্রদল নেতা মকসুদ আহমদ, জাহিদুল ইসলাম, আল আমিন, সাহেদ বখত, মামুন ইবনে রাজ্জাক রাসেল, আখতার আহমদ, রুমেল শাহ, লিটন কুমার দাস নান্টু, ইমদাদুল হক, আতিকুর রহমান, মাজহারুল ইসলাম মাজু, আসাদ আহমদ, আইয়াজ আলী, আমির উদ্দিন, রায়হান, সামাদ, রাসেল, মাসুদ গাজী, আউয়াল, নাবিল রাজা চৌধুরী, সাহেদ আলী, মুহিত, সজিব, শামিম, রাহি, সজিব, রাজু আহমদ, রাসেল, আফসার খান, বাপ্পি, সজিব আহমদ, সৈয়দ হারুন রশিদ সহ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের ২০০জনকে আসামি করা হয়েছে।

উলেখ্য, বিস্ফোরক আইনে পুলিশ ও সরকারী কাজে বাধা প্রদান, ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো এবং পুলিশ সদস্যকে মারপিঠ করে গুরুতর জখম করে সরকারী ও বেসরকারী গাড়ী ভাংচুর করে দুই লক্ষ দশ হাজার টাকার ক্ষতি করার অপরাধে বিস্ফোরক আইনে মামলা দাখিল করা হয়। গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারী) গভীর রাতে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই অনুজ চৌধুরী বাদী হয়ে মামলাটি (নং-১২ (০২)’ ১৮ করেন।