সোমবার, ২৮ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
উন্নতির জন্য সংযমের বিকল্প নেই: ইমরান আহমদ এমপি  » «   সিলেট কুমারগাওঁ এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় দুই যুবলীগ নেতা আহত  » «   রোজার মাসে বলছি, কাউকে ছাড়ব না: মান্না  » «   কোম্পানীগঞ্জ ইমরান আহমদ কারিগরি কলেজের অনুমোদন  » «   সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদের কাপড় দিলো রাইজ স্কুল  » «   উপশহরে সুরক্ষিত ফ্লাটে দুর্ধর্ষ চুরি : অর্ধ কোটি টাকা মালামাল লুট  » «   সিমান্তিকের কিশোরী সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   ফের একতরফা নির্বাচন করতে প্রধানমন্ত্রী ভারতের শরণাপন্ন  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে ব্যারিস্টার সালামে ইফতার মাহফিলে মানুষের ঢল  » «   কমলগঞ্জে গাঁজা বিক্রয়কালে পিতা-পুত্র আটক  » «  

হায়রে তেরেসা মেডেল পদক!



দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) যে ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। তার সাংঠনিক দক্ষতা নিয়ে বির্তক বাস-মিনিবাস শ্রমিকদের মধ্যে।

শ্রমিক হয়রানী সহ মালিক স্বার্থ রক্ষা করতে যেয়ে, নিয়মনীতি লংগন করে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেন যে শ্রমিক নেতা।

কথিত সেই শ্রমিক নেতাকে আবার মাদার তেরেসা পদক প্রদানে মনোনিত করা নিয়ে চাপা প্রতিক্রিয় শুরু হয়েছে। শ্রমিকদের মধ্য বলাবলি চলছে, মাদার তেরেসা শত যুগেও একজন জন্ম নেয় না।

এমন লিজেন্ড মানবিক গুন সম্পন্ন নবেল বিজয়ীর নাম ব্যবহার করে পদক প্রদান যেমন অপাত্রে দান করার নামান্তর। এর মধ্যে দিয়ে পদক প্রদানকারীদের যোগ্যতা, দক্ষতা ও স্বচ্ছতা এখন প্রশ্নবিদ্ধ।

একাধিক সূত্র জানিয়েছে, একজন দক্ষ সংগঠকের যোগ্যতা কোন বিবেচনায় নিরূপন করলেন কর্তৃপক্ষ। যার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ নানাভাবে আলোচিত – সমালোচিত। একাধিক মামলার যিনি আসামী।

সেই বিষয়গুলো কি কর্তৃপক্ষ নজরে রাখেননি। অন্তত এই বিষয়গুলো পদক প্রদানের পূর্বে কোনো ব্যক্তি বা গোষ্টির ব্যাপারে বিবেচনায় নেয় নিরপেক্ষ ও গ্রহনযোগ্য কর্তৃপক্ষ। তাই অপাত্রে তেরেসা পদক প্রদান দিয়ে, মহিয়সী নারীর প্রতি যেন একটি অবমাননা করলেন কর্তৃপক্ষ। দায়ভার এড়াতে পারবেন না। আগামী সময় এ নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসিত হতে হবে বলে সচেতন শ্রমিকদের বিশ্বাস।