শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়: আমি ছাত্রলীগের কর্মী থেকে পাবলিক সাপ্লাইয়ার বলছি  » «   সিলেটে জাতীয় পার্টির আলোচনা সভা  » «   যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ নেতা জাবিছকে আসামী করার প্রতিবাদে মানববন্ধন  » «   প্রশ্নপত্র ফাস রোধে সরকারের ব্যর্থতার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন  » «   দুই মাসের মধ্যে সিলেটে হবে ভারতীয় হাই কমিশন অফিস  » «   মিশরে বহুতল ভবন থেকে পরা শিশুকে অবিশ্বাস্যভাবে বাঁচালেন ৩ পুলিশ  » «   সিংহের সঙ্গে ‘কথা বলতে’ খাঁচার ভেতর যুবক! (ভিডিও)  » «   মাতৃভাষা দিবসে রায়হান মেমোরিয়াল স্কুলে আলোচনাসভা  » «   মাস্টার্সে ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হওয়ায় ফরহাদকে মহানগর জাতীয় ছাত্র সমাজের সংবর্ধনা  » «   জগন্নাথপুরে মেলার নামের অশ্লীল নৃত্য ও জুয়ার আসর ভেঙে দিয়েছে পুলিশ  » «  

হায়রে তেরেসা মেডেল পদক!



দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) যে ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। তার সাংঠনিক দক্ষতা নিয়ে বির্তক বাস-মিনিবাস শ্রমিকদের মধ্যে।

শ্রমিক হয়রানী সহ মালিক স্বার্থ রক্ষা করতে যেয়ে, নিয়মনীতি লংগন করে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেন যে শ্রমিক নেতা।

কথিত সেই শ্রমিক নেতাকে আবার মাদার তেরেসা পদক প্রদানে মনোনিত করা নিয়ে চাপা প্রতিক্রিয় শুরু হয়েছে। শ্রমিকদের মধ্য বলাবলি চলছে, মাদার তেরেসা শত যুগেও একজন জন্ম নেয় না।

এমন লিজেন্ড মানবিক গুন সম্পন্ন নবেল বিজয়ীর নাম ব্যবহার করে পদক প্রদান যেমন অপাত্রে দান করার নামান্তর। এর মধ্যে দিয়ে পদক প্রদানকারীদের যোগ্যতা, দক্ষতা ও স্বচ্ছতা এখন প্রশ্নবিদ্ধ।

একাধিক সূত্র জানিয়েছে, একজন দক্ষ সংগঠকের যোগ্যতা কোন বিবেচনায় নিরূপন করলেন কর্তৃপক্ষ। যার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ নানাভাবে আলোচিত – সমালোচিত। একাধিক মামলার যিনি আসামী।

সেই বিষয়গুলো কি কর্তৃপক্ষ নজরে রাখেননি। অন্তত এই বিষয়গুলো পদক প্রদানের পূর্বে কোনো ব্যক্তি বা গোষ্টির ব্যাপারে বিবেচনায় নেয় নিরপেক্ষ ও গ্রহনযোগ্য কর্তৃপক্ষ। তাই অপাত্রে তেরেসা পদক প্রদান দিয়ে, মহিয়সী নারীর প্রতি যেন একটি অবমাননা করলেন কর্তৃপক্ষ। দায়ভার এড়াতে পারবেন না। আগামী সময় এ নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসিত হতে হবে বলে সচেতন শ্রমিকদের বিশ্বাস।