বুধবার, ২২ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর

কার্ডিফ সিটির মতো সিলেট সিটি করপোরেশন গড়া হবে…মেয়র আরিফ



নিউজডেস্ক :: সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, স্থানিয় সরকারের উন্নয়নের মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে সিটি করপোরেশন। বিশ্বের অনেক উন্নত দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম বৃটেনের কার্ডিফ সিটি। কার্ডিফ সিটির সাথে সিলেট সিটি করপোরেশনের সেতুবন্ধন তৈরী হলে একসময় সিলেট সিটি করপোরেশন হবে কার্ডিফ সিটির মতো উন্নত একটি সিটি। আজ তিনি মঙ্গলবার রাতে নগর ভবনে আয়োজিত বৃটেনের কার্ডিফ সিটি কাউন্সিলের সফররত প্রতিনিধি দলের সম্মানে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সিসিক কর্মকর্তা চন্দন দাসের উপস্থাপনায় সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কার্ডিফের সাবেক ডেপুটি লর্ড মেয়র ও বর্তমান কাউন্সিলর আলী আহমদ।সিসিক মেয়র বলেন, সিলেট সিটি করপোরেশন সব সময় লন্ডন সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের প্রবাসীদের সম্মান দিতে প্রস্তুত রয়েছে। মেয়র বলেন, সিলেট সিটি করপোরেশনের চারটি বিদ্যালয় রয়েছে।

এ বিদ্যালয়ের মধ্যে সবচেয়ে অবহেলিত হচ্ছে ভোলানন্দ নাইট স্কুল। এই স্কুলের শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দিতে না পারায় শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। অবহেলিত শিক্ষার্থীদের লেখা পড়ার মান বাড়াতে বেতন ভাতা প্রদানের জন্য কার্ডিফ সিটি কাউন্সিলর আলী আহমদকে আহবান জানান সিসিক মেয়র। এসময় তিনি বলেন, সিসিকে অনেক সমস্যা আছে। সে গুলো সমাধানে কার্ডিফ সিটি এগিয়ে আসলে অনেক সমস্যা সমাধান করা সম্ভব হবে।

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে কার্ডিফ সিটি’র সাবেক ডেপুটি লর্ড মেয়র ও বর্তমান কাউন্সিলর আলী আহমদ বলেন, “কার্ডিফ সিটির সাথে সিলেট সিটির কর্মকর্তাদের পেশাগত অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে কার্ডিফ সিটি কাউন্সিল সহযোগিতা করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।” অনুষ্ঠানে সিলেট সিটি মেয়র, কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাদের কার্ডিফ সিটি পরিদর্শনের আহবান জানিয়ে আলী আহমদ বলেন, “সিলেট সিটি করপোরেশনের বিদ্যালয়, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখা-পড়ার মান বৃদ্ধির লক্ষে সহায়তা করার ইচ্ছে রয়েছে তাদের। কাউন্সিলর আলী আহমদ জানান, সিলেটের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে কার্ডিফ-বাংলাদেশ কানেকটিং প্রোগ্রাম চালু রয়েছে। এর মাধ্যমে সিলেটের প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষা ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হচ্ছে।

আলী আহমদ বলেন, বাংলাদেশ থেকে ১৫ জন শিক্ষক কার্ডিফে গিয়ে সেখানকার শিক্ষা ব্যবস্থা, কলাকৌশল পরিদর্শন করেছেন অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছেন। একইভাবে কার্ডিফের শিক্ষক প্রতিনিধি দল ইতিমধ্যে বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেছেন। এভাবে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে সিলেটের শিক্ষা ক্ষেত্র এগিয়ে যাবে।
শিক্ষা ছাড়াও বাংলাদেশে পরিবেশ, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন সেক্টরে উন্নয়নে বৃটেন সহযোগিতামূলক সম্পর্ক অব্যাহত রেখেছে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এনামুল হাবিব, ওয়েলস-সিলেট পার্টনারশিপ এর কো-অর্ডিনেটর কবীর আহমদ সোহেল। বক্তব্য রাখেন প্রতিনিধি দলের সদস্য কার্ডিফ সিটির শিক্ষক রেবেকা মৌর ও নিকি বিচ, কমিউনিটি নেতা মো. আনা মিয়া, হুসেন আহমদ, শোয়েব কামালী। এসময় সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, এবিএম উজ্জল, রাজিক মিয়া, নির্বাহী প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান, প্রকৌশলী আলী আকবর, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আ ন ম মুনসেফ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হানিফুর রহমান। অনুষ্ঠান শেষে বাংলাদেশ সফররত প্রতিনিধি দলের সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন করে সিসিক।