মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

স্বৈরাচারি সরকারের ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে-আরিফুল হক



ডেস্ক রিপোর্ট:: দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার করে না নিলে সিলেট থেকে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেছেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

তিনি বলেন, জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে সকল মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। এরমধ্যে এই স্বৈরাচারি সরকারের সকল ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে।

বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ওপর থেকে মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর চৌহাট্টায় মুক্তিযোদ্ধাদল, যুবদল, ছাত্রদল, হকার্সদলসহ তৃণমূল নেতৃবৃন্দের উদ্যোগে আয়োজিত মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সাবেক তিন বারের প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ও দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের আগমনের মধ্য দিয়ে ভোটের মাধ্যমে আবারো সরকার গঠন করে জনগণের মুখে হাসি ফুটাবে বিএনপির নেতৃত্বাধীন সরকার। তাই নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র কিংবা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে কোনো ষড়যন্ত্রমূলক সিদ্ধান্ত আসলে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমাদের নেত্রী রাজনৈতিক দর্শন বলে দিয়েছেন- আমরা কিভাবে নির্বাচন চাই। এই সরকারের একমাত্র উপায় হচ্ছে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া। দীর্ঘ ৭ বছর আমাদের নেতাকর্মীদের গুম খুন করেছে।

এই সরকার আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে জেলে পুড়িয়েছে। গুম-খুন করেছে। নেতাকর্মীরা যারা পুলিশকে ভয় করতো, আওয়ামী লীগ সেই ভয় ভাঙিয়ে দিয়েছে। আমরা আর জেল-জুলুম ভয় পাই না। পুলিশ র‌্যাব ছাড়া একদিনের সময় দেন, সারা শহর মিছিলের নগরীতে পরিণত হবে।

মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দল সভাপতি সালেহ আহমদ খসরুর পরিচালনায় ও জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক সুরমান আলীর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক সিদ্দিক, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতা সিদ্দিকী, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদিকুর রহমান সাদিক, মহানগর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক ইউনুস মিয়া, মহানগর বিএনপি নেতা আব্দুর রহিম মল্লিক, শেখ মঈন উদ্দিন, মহানগর শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুক এলাহী সিদ্দিক, যুবদল নেতা আব্দস শুকুর, সুলতান আহমদ বাবু, নাজমুল হোসেন দিপন, হকার্সদল সভাপতি আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক খোকন আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রকিব চৌধুরী, ছাত্রদল নেতা সলিট আহমদ, আশরাফ আহমদ, দিনার আহমদ, ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মাসুম আহমদ, জাসাস দল নেতা সিরাজ মিয়া, তাঁতিদল মহানগরের সাধারণ সম্পাদক পুতুল আহমদ প্রমুখ।